মেইন ম্যেনু

দুই মন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি বিএনপির

খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজ্জামেল হকের পদত্যাগের দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল আয়োজিত ‘স্বাধীনতা দিবস’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন এই দাবি জানান।

দুই মন্ত্রীর সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের আদালত অবমাননা প্রসঙ্গে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, আদালতের রায়ের পর দুই মন্ত্রীর নিজেদের ইচ্ছায় পদত্যাগ করার কথা ছিল। কিন্তু তারা তা করেননি। তারা এখনো নিলর্জ্জের মতো তাদের অবস্থানে আছেন। সুতরাং কামরুল ইসলাম ও আ ক ম মোজ্জামেলকে মন্ত্রী পরিষদ থেকে বাদ দিতে হবে।

তিনি বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে কোনো দেশে এ রকম ঘটনা কখনো ঘটেনি যে দেশের সেন্ট্রাল ব্যাংক থেকে টাকা চুরি হয়। সরকারের সাহায্য ছাড়া কোনোভাবেই বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা চুরি হয়নি। এই চুরির জন্য অর্থমন্ত্রীসহ বর্তমান সরকারের পদত্যাগ করা উচিৎ ছিল। অথচ এই ‘রাবিশ’ ডিপার্টমেন্টের ‘খবিশ’ মন্ত্রীকেই সরকার স্বাধীনতা পদক দিয়েছে।

শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, আল্লাহ প্রধান নির্বাচন কমিশনার রকিব উদ্দিনের বিচার করবে। যে নির্বাচনে কোনো ভোট নেই, ভোটার নেই। সেই নির্বাচনকে আপনি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন বলেছেন। আর এর জন্য আপনারও বিচার করা হবে।

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দলের নতুন কমিটি গঠনের পর বিএনপি আন্দোলন ও সংগ্রামের ডাক দেবে। আর সেই আন্দোলনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে অংশগ্রহণ করতে হবে।

আয়োজক সংগঠনের সিনিয়র সহসভাপতি মুহাম্মদ মুনির হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, সাংগঠিক সহসম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানাসহ আরো অনেকে ছিলেন।