মেইন ম্যেনু

দুই মাথা বিশিষ্ট সাপ! (ভিডিও সহ)

দু’মুখো সাপ মেডুসা। লাল-সাদা হান্ডুরান মিল্ক প্রজাতির সাপ মেডুসার বর্তমান মালিক টোড রেই।

চার বছর আগে যখন মেডুসা ফ্লোরিডায় জন্মেছিলো তখন থেকেই তাকে আমি পেতে চেয়েছিলাম। যখন মেডুসাকে কিনতে যাই, তখন তার দাম ক্রমশ বেড়েই যাচ্ছিলো। জানান, ভেনিস বিচ ফ্রেকশো’র স্বত্ত্বাধিকারী রেই।

ভেনিস ফ্রেক শো হচ্ছে শারীরিকভাবে স্বতন্ত্র প্রাণীদের প্রদর্শনী। এখানে জন্মগতভাবে বিরল শারীরিক গঠন, আচরণগত ভিন্নতা রয়েছে এমন প্রাণীদের দেখানো হয়।

টোড রেই ইতোমধ্যেই দুই মাথার বিভিন্ন প্রাণীর বিশাল সংগ্রহের জন্য গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড খেতাব পেয়েছেন। কিন্তু রেইয়ের কাছে সবার চেয়ে মেডুসাই বেশি ভালোবাসার দাবিদার।

1233

রেইর ভাষ্যমতে, মেডুসা একেবারেই নিঁখুত। অন্য দুই মাথার সাপ দেখতে সুন্দর হলেও তারা দুই মাথা সামলে নিতে পারে না। কিন্তু মেডুসা তেমন নয়। সে তার দুই মাথা নিয়ে সচেতন।

মেডুসাকে নিজের কাছে নিয়ে আসার পর রেই এক সপ্তাহ সময় দিয়েছিলেন যাতে সাপটি নতুন জায়গার সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে।

দু’মুখো সাপটি লম্বায় তিন ফুট। কিন্তু সহজেই কব্জি দিয়ে ধরা যায় তাকে। বিশেষ করে খাওয়ানোর সময়।

খাওয়ানোর সময় রেই তাদের মাথা দু’টির মাঝখানে কার্ড রেখে খাওয়ান যাতে একে অপরকে কামড়ে না দেয়। যেহেতু এই প্রজাতির সাপ নিজেরাই সাপভোজী, সেহেতু একটু শঙ্কা তো রয়েছেই! একবার তো বিপত্তি ঘটতেই নিয়েছিলো।

রেই জানান, একবার মেডুসা ইঁদুর ধরতে দু’টো মুখই হা করে। ডান মাথাটি হ্যাঁচকা টান দিয়ে ইঁদুরটিকে নিয়ে নেয়। সঙ্গে সঙ্গেই বাম মাথাটিও ইঁদুরের বাকি অংশ কামড়ে ধরে। নিমেষেই চেটেপুটে সাবাড়।

snake_11_725208265

এরপর ডানপাশের মাথাটি বামপাশের মাথাটিকে গিলে ফেলার প্রস্তুতি নিতে নিতেই রেই ইঁদুরটিকে ছুরি দিয়ে দু’টুকরো করে ফেলেন।

সে যাত্রায় বাঁচা গেলো!

রেই মেডুসাকে ভেনিস বিচ ফ্রেকশোতে ডিসপ্লেতে রাখার পরিকল্পনা করছেন। প্রদর্শনীটি শুরু হবে আগামী শনিবার।

মেডুসার লালন-পালনে রেইর মোট খরচ পড়ছে ৫০ হাজার ডলার। যার বাংলাদেশি মূল্য প্রায় ৩৮ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

রেই জানান, আমি ভাবি সে সত্যিই তারকা। সে যদি মূল্যবান না হতো তাহলে তার পেছনে এতো অর্থ ব্যয় করতাম না আমি।