মেইন ম্যেনু

দুই যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসি : যশোরে ট্রাকে করে মিষ্টি বিতরণ

আলবদর নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ও একাত্তরের ‘চট্টগ্রামের ত্রাস’ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় আনন্দে যশোরে ১৫ মণ মিষ্টি বিতরণ করেছে জেলা আওয়ামী লীগ।

রোববার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহর ও শহরতলীতে এ মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডিত এই দুই যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসির রায় কার্যকর হওয়ায় রোববার সকালেই দলীয় কার্যালয়ে ভিড় করেন নেতাকর্মীরা। এ সময় ট্রাকে করে ১০ মণ মিষ্টি নিয়ে আসেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার। তিনি যশোরের মুক্তিযোদ্ধা, দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষের মুখে মিষ্টি তুলে দেন। এরপর নেতাকর্মীরা একে অন্যকে মিষ্টিমুখ করিয়ে উল্লাস প্রকাশ করেন।

পরে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়সহ শহরের মনিহার চত্বর, খাজুরা বাসস্ট্যান্ড, রেলগেট, বেজপাড়া, শংকরপুর, চুয়াডাঙ্গা স্ট্যান্ডসহ শহরের ১০টি পয়েন্টে ও শহরতলীর বিভিন্ন এলাকায় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষকে মিষ্টিমুখ করানো হয়। সবমিলিয়ে শহর ও শহরতলীতে ১৫ মণ মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে বলে নেতারা জানিয়েছেন।

এ সময় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে অন্য যুদ্ধাপরাধীদেরও দ্রুত বিচারের মুখোমুখি করার জন্য স্লোগান দেন। সেসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান বিপু, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল প্রমুখ।

এর আগে ফাঁসি কার্যকরের খবরে রাতেই শহরে মিছিল করেন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিলটি বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে।