মেইন ম্যেনু

দুর্ঘটনার কবল থেকে বেঁচে গেলেন রোনালদো!

নিজেকে সৌভাগ্যবান ভাবতেই পারেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। মৌসুমের শুরুতেই দুর্ঘটনার শিকার বা কোনো চোট বাঁধিয়ে বসলে তার নিজের জন্য তো বটেই; ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের জন্যও সেটা হতো অনেক বড় এক দুসংবাদ। কিন্তু রোনালদোর ভাগ্য ভালো, বড় কোনো বিপদ বা চোট পাননি। ঈশ্বরের অশেষ আশীর্বাদে দুর্ঘটনা বা চোটের কবল থেকে এ যাত্রা বেঁচ গেছেন রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ সুপার স্টার।

ঘটনাটা গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার। সেদিন রাতে মেসিযোনিয়ার স্কোপজেতে উয়েফা সুপার কাপের ম্যাচ ছিল রিয়াল মাদ্রিদের। ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-১ গোলে হারিয়ে মৌসুমসূচক উয়েফা সুপার কাপের শিরোপাও জিতেছে রিয়াল। প্রাক-মৌসুমপর্বের পুরোটা সময়ই ছুটি কাটানো রোনালদোও এই ম্যাচ দিয়েই মৌসুমে প্রথম বারের মতো মাঠেও নেমেছিলেন। ম্যাচের ৮৩ মিনিটে করিম বেনজেমার বদলি হিসেবে নেমে খেলেছেন মাত্রই মিনিট সাতেক। কিন্তু সুস্থ শরীরে তার মাঠে নামাটাই ছিল ক্লাব রিয়াল এবং কোচ জিনেদিন জিদানের জন্য অনেক বড় স্বস্তির খবর।

ওই ম্যাচের আগেই সম্ভাব্য চোট ফাড়া থেকে বেঁচে যান রোনালদো। সন্ধ্যায় রিয়াল মাদ্রিদের টিমবাস থেকে নামার সময় সিঁড়িতে পা পিছলে যায় তার। ভাগ্য ভালো, কোনো বিপদ ঘটেনি। এমনকি পিছলে গিয়ে ডান পা অনেক উপরেও উঠে যায়। কিন্তু তারপরও ৩২ বছর বয়সী ভূপাতিত হননি। পড়িমরি করে দরজার হাতল ধরে নিজের ভারসাম্য রক্ষা করেছেন। বেঁচে গেছেন দুর্ঘটনার কবল থেকে। পরে হাসতে হাসতে নেমে আসেন গাড়ি থেকে।

মৌসুমের শুরুতেই কোনো বিপদ বা চোট না পাওয়ায় রোনালদো ভক্তরা নিশ্চয় খুব খুশি।






মন্তব্য চালু নেই