মেইন ম্যেনু

দুর্যোগ মোকাবেলায় সাতক্ষীরায় সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহন জেলা প্রশাসনের

বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ সৃষ্টি হওয়ায় সর্বাত্মক প্রস্তুত গ্রহন করেছে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন। সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার উপকূলীয় এলাকার মানুষকে সতর্ক করে মাইকিং শুরু হয়েছে।

দুর্যোগকালীন ও দুর্যোগপরবর্তী যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৪ হাজার স্বেচ্ছাসেবক।

শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু সায়েদ মোহাম্মদ মঞ্জুর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বৃহস্পতিবার সকালে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরী সভা আহ্বান করা হয়েছে।
এছাড়া বুধবার রাতে প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে মাইকিং করে জনসাধারণকে সজাগ থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। পাশাপাশি মাছ ধরা ট্রলার ও নৌকাগুলোকে উপকূলীয় এলাকার কাছাকাছি থাকতে বলা হয়েছে।
এ বিষয়ে পদ্মপুকুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন জানান, তার ইউনিয়নে ইতোমধ্যে মাইকিং শুরু হয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ.এফ.এম এহতেশামুল হক জানান, ‘বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ সৃষ্টি হওয়ায় বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরী সভা করা হয়েছে। দুর্যোগ মোকাবেলার আওতায় ৪নং সতর্ক সংকেতের বিষয়ে উপজেলা পর্যায়ে কন্ট্রোল রুম খোলাসহ প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণের বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে এবং সকল ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রগুলোকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।’

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) লস্কার তাজুল ইসলাম জানান, ‘দুর্যোগ মোকাবেলায় জেলার ৭৪টি ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। মৎস্যজীবীদের নিরাপদ স্থানে থাকতে বলা হয়েছে। আপদকালীন সময়ের জন্য ২৩ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে মেডিকেল টিমও।
এছাড়া দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির আওতায় জেলা প্রশাসন, সাতক্ষীরার কন্ট্রোল রুমের টেলিফোন নম্বর ০৪৭১-৬২৩১৭, ০৪৭১-৬৩২৮১, মোবাইল : ০১৯১৫-৪২৭৫৩৩।’