মেইন ম্যেনু

দু-একদিনের মধ্যে তাপমাত্রা কমবে

গত কয়েকদিনের প্রচন্ড গরমে নাভিশ্বাস উঠেছে রাজধানীসহ সারাদেশের জনজীবনে।

শুধু মানুষ নয়, প্রচন্ড গরমে আক্রান্ত হচ্ছে পশু-পাখিও। এরমধ্যে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে পশুর হাটে শুক্রবার এক ব্যবসায়ীর তিনটি গরু মারা গেছে।

এমন অবস্থায় সুখবর দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আগামী দু-একদিনের মধ্যে তাপমাত্রা কমে আসবে। পাশপাশি দেশের কিছু কিছু এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে। পর্যায়ক্রমে সারাদেশে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের দায়িত্বরত কর্মকর্তা আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন জানান, শুক্রবার রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটা গত চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। এর আগে গত ৫ জুন রাজধানীতে ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে বগুড়ায় ৩৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃহস্পতিবার ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সারা দেশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তর আরো জানিয়েছে, পূর্বমধ্য প্রদেশ ও তৎসংলগ্ন উড়িষ্যা ও মহারাষ্ট্র এলাকায় অবস্থান করছে স্থল নিম্নচাপ। এটি পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে বর্তমানে মহারাষ্ট্রে অবস্থান করছে।

মৌসুমী বায়ুর বর্ধিতাংশের অক্ষ গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, নি¤চাপের কেন্দ্রস্থল উড়িষ্যা হয়ে গাঙ্গেয় পশ্চিম বঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণাংশ হয়ে উত্তরপূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশের অক্ষ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত।

মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দূর্বল থেকে মাঝারী অবস্থায় বিরাজ করছে।

এদিকে শুক্রবার আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের দু’ এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সেই সঙ্গে খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।