মেইন ম্যেনু

দেখুন কাণ্ড! বর্ষবরণে শীতের সকালে ২০১৭ বার পুকুরে ডুব!

বিশ্বজুড়ে চলছে বর্ষবরণ। উৎসবে মেতে রয়েছেন আমজনতা। চলছে সেলিব্রেশন। কিন্তু এই যুবক যেভাবে বর্ষবরণ করলেন তা কল্পনার অতীত।

আপনি কীভাবে নতুন বছর উদ্‌যাপন করবেন? পার্টি করে, ঘুরতে গিয়ে, কিংবা অন্য কোনওভাবে। তবে এই যুবক যেভাবে বর্ষবরণ করলেন তা কল্পনার অতীত।

ডিসেম্বর পেরিয়ে জানুয়ারি। ঠান্ডাও ভালই রয়েছে। এই ঠান্ডায় অনেকেই জল এড়িয়ে চলেন। কিন্তু নতুন বছরের প্রথম দিনেই বিষ্ণুপুরের লালবাঁধে একটানা ২০১৭ বার ডুব দিয়ে নতুন বছরকে বরণ করে নিলেন চক বাজারের বাসিন্দা সদানন্দ দত্ত। রবিবার দুপুর নাগাদ তিনি এই ডুব দিতে শুরু করেন। তাঁর এই অভিনব বর্ষবরণ দেখতে লালবাঁধের পাড়ে ভিড় জমান অসংখ্য মানুষ।

সদানন্দ দত্ত পেশায় গাড়ি চালক। ছোট থেকেই সাঁতার তাঁর নেশা। অবলীলায় তিনি বড় বড় নদী ও দিঘি সাঁতার কেটে পেরিয়ে যেতে পারেন। ২০১৫ সাল থেকে জলে ডুব দিয়ে বিশ্বরেকর্ড করার ভূত তাঁর মাথায় চাপে। তার পর থেকেই কঠোর অনুশীলন শুরু করেন তিনি। এখন তিনি ঘণ্টার পর ঘণ্টা অবলীলায় হাজার হাজার ডুব দিতে পারেন।

জানা গিয়েছে গত বেশ কয়েক বছর ধরেই তিনি ডুব দিয়ে বর্ষবরণ করেন। এবারও তার অন্যথা হল না। রবিবার দুপুরে লালবাঁধের এক বুক জলে নেমে মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যে সেরে ফেললেন ২০১৭ টি ডুব। অভিনব এই বর্ষবরণ দেখে রীতিমত হতবাক এলাকার মানুষ। সদানন্দ বাবুর এই ডুব দেওয়া দেখতে লালবাঁধের পাড়ে হাজির হয়েছিলেন বিষ্ণুপুরের বিধায়ক তুষার কান্তি ভট্টাচার্য থেকে শুরু করে পুরসভার কর্মকর্তারাও। প্রত্যেকেই তাঁকে অভিবাদন জানিয়েছেন।