মেইন ম্যেনু

দেখে নিন, বাংলাদেশি অ্যাথলেটদের অলিম্পিকে খেলার সময়সূচি

নিঃশ্বাস দূরত্বে ক্রীড়াঙ্গনের মহাআয়োজন অলিম্পিক। বাংলাদেশ থেকে এবার সাতজন অংশ নিচ্ছেন এই প্রতিযোগিতায়।

লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের প্রথম খেলা ৫ আগস্ট। এদিন আরচার শ্যামলী রায় শুরু করবেন বাংলাদেশের অলিম্পিক মিশন। রিও ডি জেনিরোতে বাংলাদেশ সময় রাত দশটায় আরচারি গ্রাউন্ডে নামবেন বাংলাদেশের এই আরচার।

শ্যামলীর পরই শুটার আবদুল্লাহ হেল বাকীর পালা। ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন দেশসেরা এই শুটার। বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায়।

আরচারি ও শুটিংয়ের পর গলফ। ১১ আগস্ট নামবেন গলফার সিদ্দিকুর রহমান। বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় শুরু হবে সিদ্দিকুরের পরীক্ষা।

বাংলাদেশের দুই সাঁতারুর মধ্যে প্রথমে পুলে নামবেন মাহফিজুর সাগর। বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় শুরু হবে সাগরের প্রতিযোগিতা। পরের দিন একই সময়ে পুলে নামবেন অন্য সাঁতারু সোনিয়া আক্তার। দু’জনই ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইলে সাঁতরাবেন।

২০১২ লন্ডন অলিম্পিকেও অংশ নিয়েছিলেন সাগর; সেবার ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইলে তার টাইমিং ছিল ২৪.৬৪ সেকেন্ড। সোনিয়া এবারই প্রথম অলিম্পিকে অংশ নেবেন।

সবার শেষে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের লড়াই। ১২ ও ১৩ তারিখে যথাক্রমে ট্র্যাকে নামবেন শিরিন আক্তার ও মেজবাহ আহমেদ। ১০০ মিটার স্প্রিন্টের হিটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন তারা দু’জন। ১২ তারিখ বাংলাদেশ সময়ে গভীর রাতে ১টা ৫৫ মিনিটে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের লড়াইয়ে নামবেন দেশের দ্রুততম মানবী শিরিন। পরের দিনই বাংলাদেশ সময়ে রাত সাড়ে ১১টায় নামবেন দেশের দ্রুততম মানব মেজবাহ।

এবার অলিম্পিকে সোনা জিততে পারলে অ্যাথলেটদের এক কোটি টাকা, রুপা জয়ীদের ৫০ লাখ টাকা ও ব্রোঞ্জ জয়ীদের ২৫ লাখ টাকা করে পুরস্কার দিবে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন।-ঢাকা টাইমস