মেইন ম্যেনু

শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো সারাদেশ

রাজধানীসহ সারাদেশে রিখটার স্কেলে প্রায় সাত মাত্রার এক শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। বুধবার (১৩ এপ্রিল) বাংলাদেশ সময় রাত সাতটা ৫৬ মিনিটে এই ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ঢাকা থেকে ৪৬০ কিলোমিট‍ার দক্ষিণ-পূর্বে মায়ানমারের মাউলাইক শহরের ৭৪ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্বে ছিলো ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল। স্থানটি বাংলাদেশ-ভারত ও মায়ানমারের সীমান্ত সংলগ্ন।

ভূপৃষ্ঠ থেকে ১৩৪ কিলোমিটার গভীরে ভূমিকম্পটির কেন্দ্র বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে (ইউএসজিএস)। অবশ্য ভূমিকম্পের পরপরই এর মাত্রা ৭.২ বলে খবর পাওয়া গেলেও পরবর্তীতে এর মাত্রা রিখটার স্কেলে ৬.৯ বলে নিশ্চিত করে যুক্তরাষ্ট্রের ইউএসজিএস।

ভূমিকম্পের পরপরই সারাদেশে ইন্টারনেটসহ মোবাইল নেটওয়ার্ক সংযোগে বিঘ্ন দেখা দেয়। তবে অল্প সময়ের পরই মোবাইল ও ইন্টারনেট সংযোগ পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসে। প্রাথমিকভাবে এখনও কোনো ধরনের ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

সময়টা ঠিক সন্ধ্যা হওয়ায় রাজধানীতে কর্মজীবী সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ ছিল একান্তই ব্যস্ত। কেউ হয়তো দিনের কাজ শেষে সন্ধ্যায় ঘরে ফিরছিল, কেউ হয়তো একটু আগেই বাসা থেকে কাজের উদ্দেশ্যে বের হয়েছিল। কিন্তু হঠাৎ ঝাঁকুনিতে সব কিছুই যেন উলোট-পালোট হয়ে গেলো।

কাজের ব্যস্ততায় ভূমিকম্পের অনুভূতি সামান্য দেরিতে টের পেলেও পরক্ষণেই নগরবাসীর মধ্যে শুরু হয় ছুটাছুটি। তাদের অনেককেই সুউচ্চ ভবন থেকে সিঁড়ি বেয়ে দৌড়ে নিচে নেমে আসতে দেখা গেলো। চারদিকে শুরু হলো মানুষের হইহুল্লোড়। যে যেভাবে পারছে আত্মরক্ষায় ছুটছে। কেউ কেউ হয়তো সৃষ্টিকর্তার উপর ভরসা রেখে ঘরেই বসেছিলেন।