মেইন ম্যেনু

দেশপ্রেম ও ত্যাগের মনোভাব নিয়ে কাজ করুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের স্বাধীনতা এমনি এমনিতেই আসেনি। ২৩ বছরের নিরলস সংগ্রাম এবং দীর্ঘ নয় মাসের যুদ্ধের মধ্যদিয়ে আমরা এই দেশটি পেয়েছি।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সারা দিয়ে সেদিন সবাই যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে।পাকিস্তান আমলে বাঙ্গালি অফিসাররা নানাভাবে বঞ্চিত থাকতো। আমাদের কোনো অফিসারকে যুগ্ম সচিব পর্যন্ত করা হতো না। তবে ছয় দফার পর কিছুটা পরিবর্তন আসে।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (বিপিএটিসি) চলমান পি-৬০তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছিল ঠিক তখন ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়। ঐ হত্যাকান্ডের মধ্যদিয়ে সামরিক বাহিনী অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসে। এর পর আমাদেরকে পিছনে ফিরে যেতে হয়।দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়ে সামরিক সরকার দুর্নীতিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়ে। গণমুখী ব্যবস্থা তখন বার বার বাধাগ্রস্ত হতে থাকে।আমাদের দেশে বার বার সংবিধান লঙ্ঘন হয়েছে। শেষ পর্যন্ত দীর্ঘ লড়াই-সংগ্রামের পর আবার আমরা সঠিক ধারায় ফিরে আসি।

সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশ এখন সঠিকপথে রয়েছে, বিশ্ব আজ এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের সঙ্গে আমাদেরকে তালমিলিয়ে চলতে হবে। আর এ জন্য প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই।আমরা উচ্চতর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছি।বিদেশে প্রশিক্ষণেরও ব্যবস্থা রয়েছে।সরকারের কাজে যাতে গতি আসে সে জন্য সব ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

সরকারি কাজে গতি বাড়ানোর জন্য নানা পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সকলকেই ডিজিলাট পদ্ধতির ওপর নির্ভর করে এগিয়ে যেতে হবে।নতুন নতুন দিক উদ্ভাবনে কর্মকর্তাদের পড়াশুনার দিকে নজর দেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী । তিনি বলেন, আপনাদেরকেই দেশের অগ্রগতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে।

প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নবীন কর্মকর্তাদেরকে জনগণের সেবক হিসাবে দায়িত্বপালন করার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কাউকে অবহেলা করা যাবে না। কেননা জনগণের টাকায় আপনাদের বেতন হয়। তাছাড়া আমাদের সরকার রেকর্ড পরিমান বেতন বাড়িয়েছে। দেশকে ভালোবাসতে হবে, জনগণের প্রতি শ্রদ্ধা রাখতে হবে। কাউকে অবহেলা করা যাবে না। দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় না দিয়ে কাজ করতে হবে।কারো কাছে হাত পেতে নয়, নিজের সম্পদ দিয়ে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে।