মেইন ম্যেনু

দেহ ব্যবসার দায়ে নায়িকা গ্রেফতার! (ভিডিও)

তেলুগু ছবির লাস্যময়ী অভিনেত্রী শ্বেতা বসু প্রসাদকে অবৈধ দেহ ব্যবসার দায়ে গ্রেফতার করেছেন। হায়দরাবাদের বানজারা হিলসের এক অভিজাত হোটেল থেকে তাকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশ।

গোপন সূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছিল আগেই। সেই মতো বানজারা হিলসের পার্ক হায়াত হোটেলে ফাঁদ পাতে পুলিশ। রোববার রাতে সেখানেই হাতেনাতে ধরা পড়লেন তেলুগু সিনেমার উঠতি নায়িকা শ্বেতা বসু প্রসাদ। অবৈধ যৌন ব্যবসার অভিযোগে তাকে আটক করার পাশাপাশি যৌনবৃত্তির দালালির অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে বালু নামে এক ব্যক্তিকে।

বাঙালি মা এবং বিহারি বাবার মেয়ে শ্বেতার জন্ম জামশেদপুরে। পরে তার পরিবার মুম্বইয়ে এসে থিতু হয়। শৈশব থেকেই অভিনয়ের প্রতি তীব্র ঝোঁক ছিল শ্বেতার। মাত্র ১১ বছর বয়সে হিন্দি ছবি মাকড়ি-তে প্রথম অভিনয় করেন তিনি। চুন্নি ও মুন্নির দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করে জাতীয় পুরস্কার লাভ করেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, ক্লায়েন্ট সেজে দালাল বালুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে শ্বেতার খোঁজ মেলে। জানা যায়, যুবতী অভিনেত্রীর সঙ্গ পেতে হলে খরচ করতে হবে মোটা টাকা। গোপন ক্যামেরায় তোলা ভিডিওতে দেখা গেছে, ক্লায়েন্টের কাছ থেকে এই বাবদ ৫ লাখ টাকা দাবি করছিলেন শ্বেতা।

অগ্রিম হিসেবে নেওয়া হয়েছিল ১ লাখ টাকা। এর মধ্যে বালুর ভাগে ছিল ১৫ হাজার টাকা। বাকি অর্থ অভিনেত্রীর জিম্মায় থাকে। যথাসময়ে ক্লায়েন্ট সেজে হোটেলের ঘরে উপস্থিত হয় পুলিশ। শ্বেতা এসে পৌঁছনোর সঙ্গে সঙ্গে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার এরামঞ্জিল আদালতে তাকে হাজির করে পুলিশ। আদালতের নির্দেশে অভিনেত্রীকে এক সরকারি হোমে রাখা হয়েছে। বালুকে রাখা হয়েছে চার্লাপল্লি জেলে।