মেইন ম্যেনু

ধরণীর স্বপ্ন উপভোগ্যে বিশ্ব পরিবেশ দিবস

‘৭০০ কোটি স্বপ্ন। একটাই পৃথিবী। ভোগ কর যত্নের সাথে।’ হ্যাঁ ধরণীর যত স্বপ্ন তা উপভোগ্য করে তোলার লক্ষে ১০০ টিরও বেশি দেশে আজ শুক্রবার পালিত হচ্ছে বিশ্ব পরিবেশ দিবস।

১৯৭২ সালে জাতিসংঘের মানবিক পরিবেশ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সম্মেলনে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচির (ইউএনইপি) উদ্যোগে প্রতিবছর ৫ জুন ‘বিশ্ব পরিবেশ দিবস’ পালিত হয়ে আসছে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পরিবেশ দিবসকে কেন্দ্র করে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি পালন করছে।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে পরিবেশবান্ধব উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় দেশের মানুষের সম্পৃক্ততার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেছেন, এজন্য জনমানুষের মধ্যে সচেতনতা বোধ যেমন জাগিয়ে তুলতে হবে, তেমনি আইনের পরিপালনও নিশ্চিত করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে সরকারের পাশাপাশি প্রকৃতি ও পরিবেশ রক্ষায় বিশ্ব সম্প্রদায়সহ সকল মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপনের মাধ্যমে পরিবেশ সংরক্ষণে জনসম্পৃক্ততা ও জনসচেতনতা বৃদ্ধি পাবে।

এদিকে পরিবেশবাদীদের অভিযোগ, যতটা আনুষ্ঠানিকতা নিয়ে পরিবেশ দিবস পালন করা হয় তার থেকে বেশি উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে চলে পরিবেশ ধ্বংসকারী তৎপরতা। তারা এ ব্যাপারে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহবান জানিয়েছেন।

নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আজ বিকেল ৩টায় বন ভবনের হৈমন্তি সন্মেলন কক্ষে ‘বাসযোগ্য বিশ্বের জন্য আমাদের করণীয়’ শীর্ষক পরিবেশ আলোচনার আয়োজন করেছে ।

পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা ) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এসআরইপিবি মিলনায়তনে ‘অর্থনৈতিক উন্নয়ন: পরিবেশ বিপর্যয় উত্তরণে করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করেছে।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সুন্দরবন সন্নিহিত রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্প বন্ধ করা শীর্ষক নাগরিক সংলাপের আয়োজন করেছে রাজধানীর মুক্তি ভবনে।

ফার্মগেটে খামার বাড়িতে আয়োজন করা হয়েছে পরিবেশ দিবসের আলোচনা। যেখানে উপস্থিত থাকবেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।