মেইন ম্যেনু

ধর্মঘটে অচল পাকিস্তানের সব বিমানবন্দর

পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইনসের (পিআইএ) কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ধর্মঘটের কারণে দেশটির অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। জাতীয় বিমান সংস্থাকে বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে বিমানবন্দরকর্মীরা এই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার তৃতীয় দিনের মতো এ ধর্মঘট অব্যাহত রয়েছে।

বিভিন্ন বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা জানান, পিআইএর সব ফ্লাইট অনির্দিষ্টকালের জন্য বাতিল করা হয়েছে।

করাচির জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, ইসলামাবাদের বেনজির ভুট্টো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, লাহোর আল্লামা ইকবাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং পেশোয়ারের বাচা খান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পিআইএ প্রতিনিধিরাও জানিয়েছেন, এসব বিমানবন্দর থেকে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে সব ধরনের ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। পাইলটরা কোনো বিমান চালাতে চাইছেন না।

পাকিস্তান সরকার পিআইএতে ছয় মাসের জন্য ১৯৫২ সালের এসেন্সিয়াল সার্ভিস অ্যাক্ট চালু করতে চাইছে। এর বিরুদ্ধে বিমানবন্দরকর্মীরা প্রতিবাদ শুরু করেন। এর এক পর্যায়ে মঙ্গলবার করাচি বিমানবন্দরে সহিংস বিক্ষোভের সময় গুলিতে দুই প্রতিবাদকারী নিহত হলে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। এ ঘটনার দায় নিয়ে এরই মধ্যে পিআইএ এর চেয়ারম্যান পদত্যাগ করেছেন।

এদিকে যাত্রী ভোগান্তি কমাতে পাকিস্তানের বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষ বেসরকারি বিমান কোম্পানি এয়ার ব্লু-কে লাহোর, করাচি ও ইসলামাবাদ থেকে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে।