মেইন ম্যেনু

ধর্মান্ধতার বলি হুমায়ূন আজাদের জন্মদিন আজ

কোন ধর্মই যেমন হত্যা করে সমস্যার সমাধান সমর্থন করে না। ঠিক তেমনিভাবেই কোন ধর্মকে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করাও কোন অধর্মের মধ্যেও পরে না। ধর্মীয় অনুভূতিকে পুঁজি করা ধর্মান্ধদের বলি হয়েছেন হুমায়ূন আজাদ।

প্রখ্যাত এই ভাষাবিজ্ঞানী অধ্যাপক হুমায়ূন আজাদের ৬৯ তম জন্ম দিন আজ ২৮ এপ্রিল। ১৯৪৭ সালের এই দিনে মুন্সিগঞ্জ জেলার বিক্রমপুরে জন্ম গ্রহণ করেন বাংলা সাহিত্যাঙ্গনের এই কর্ণধার। ১১ আগস্ট ২০০৪ সালে ৫৭ বছরে বয়সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় সন্ত্রাসী দের চাপাতির আঘাতে গুরুতর আহত হয়ে জার্মানিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তার এই নির্মম হত্যাকান্ডে ধর্মীয় উগ্রবাদী দের দায়ী করা হয়।

তিনি বাংলাদেশের প্রধান প্রথাবিরোধী এবং বহুমাত্রিক লেখক যিনি ধর্ম , মৌলবাদ , প্রতিষ্ঠান ও সংস্কারবিরোধিতা, নিরাবরণ যৌনতা, নারীবাদ, রাজনৈতিক এবং নির্মম সমালোচনামূলক বক্তব্যের জন্য ১৯৮০’র দশক থেকে ব্যাপক পাঠকগোষ্ঠীর দৃষ্টি আর্কষণ করতে সক্ষম হয়েছিলেন।

গতানুগতিক চিন্তাধারা তিনি সচেতনভাবে পরিহার করতেন। তাঁর নারী (১৯৯২), দ্বিতীয় লিঙ্গ (২০০১) এবং পাক সার জমিন সাদ বাদ (২০০৪) গ্রন্থ তিনটি বিতর্কের ঝড়তোলে এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ সরকার বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করে।

শিক্ষকতা পেশার মধ্যদিয়ে হুমায়ুন আজাদের কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৬৯ সালে চট্টগ্রাম কলেজে প্রভাষক পরে ১৯৭০’এ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে প্রভাষক হিসাবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন।১৯৭২ সালের শেষ দিকে তিনি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক হিসাবে যোগ দেন। পরবর্তীতে ১৯৭৮ সালে পর থেকে জীবনের বাকি সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।