মেইন ম্যেনু

ধর্ষণের অভিযোগ করায় মডেলকে ২১ লাখ টাকা জরিমানা

জার্মানির এক পেশাদার মডেল ধর্ষণের অভিযোগ করায় আদালত উল্টো তাকে ২৭ হাজার ডলার তথা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২১ লাখ ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। শুক্রবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জিনা লিসা লোহফিঙ্ক নামের ২৯ বছরের ওই মডেল ২০১২ সালে অভিযোগ করেছিলেন, পারদিস এফ ও সেবাস্তিয়ান সি নামে দুই ব্যক্তি তাকে ধর্ষণ করে এবং ওই সময় এই দৃশ্য তারা ভিডিওতে ধারণ করে। পরে তারা এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়।

আদালত ভিডিওচিত্র বিশ্লেষণ করে রায়ে বলেছে, ওই সময় জিনা লিসা যৌনতার বিষয়ে কোনো আপত্তি জানাননি। কিন্তু তিনি ভিডিও ধারণ করতে নিষেধ করেছিলেন।

বার্লিনে সরকারি আইনজীবীর কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে, প্রকৃতপক্ষে জিনা লিসা ওই দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভিডিও চিত্র ধারণ ও তা অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ এনেছিলেন। পরে তিনি ধর্ষণের অভিযোগ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত ভিডিওচিত্র ধারণ ও তা প্রকাশের দায়ে ওই দুই ব্যক্তিকে ১ হাজার ৫০০ ডলার করে জরিমানা করেছে। একইসঙ্গে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগ করায় জিনা লিসাকে ২৭ হাজার ডলার তথা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২১ লাখ ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।