মেইন ম্যেনু

ধর্ষণের শাস্তি পাঁচটি চড়!

ধর্ষণের অভিযোগে সালিসে ধার‌্য করা পাঁচ লাখ রুপি জরিমানা দিতে অপারগতা প্রকাশের পর পাঁচটি চড় মেরে দুই ধর্ষককে ছেড়ে দিয়েছে গ্রাম্য মাতবররা।

ইন্ডিয়া টাইমসের এক খবরে এ তথ্য জানা গেছে। গত ১৭ ডিসেম্বর ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লি থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে উত্তরপ্রদেশের একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে খবরে বলা হয়।

প্রথমে ওই নারীর মামলা নিতে না চাইলেও পরে ঘটনাটি গণমাধ্যমের নজরে এলে গত ২৫ ডিসেম্বর পুলিশ মামলা নেয়। কিন্তু ততক্ষণে পগার পার ধর্ষকরা।

ইন্ডিয়া টাইমসের খবরে জানা যায়, উত্তরপ্রদেশের হাপুর জেলার তোদরপুর গ্রামের এক নারী রাতে সন্তানের জন্য ওষুধ কিনতে বেরিয়েছিলেন। ফেরার পথে তাকে এগিয়ে দেওয়ার নাম করে ধর্ষণ করেন একই গ্রামের দুই ব্যক্তি।

ঘটনার পর থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন ওই নারী। পুলিশ মামলা নিতে গড়িমসি করার পর গ্রাম্য পঞ্চায়েতে এ বিষয়ে সালিস ডাকা হয়। সালিসে রিজওয়ান আহমেদ ও ওয়াহাব নামে দুই অভিযুক্তকে পাঁচ লাখ রূপি করে জরিমানা করেন মাতব্বররা।

কিন্তু সালিসে ধার্য‌্য জরিমানার অর্থ দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানায় অভিযুক্তরা। অন্যদিকে ধর্ষণের শিকার নারী আর্থিক ক্ষতিপূরণের বদলে ধার্ষকদের শাস্তি দাবি করেন।

পঞ্চায়েত ধর্ষকদের শাস্তি না দিয়ে পাঁচটি করে চড় মেরে ছেড়ে দেয়।

সালিস থেকে বেরিয়েই সপরিবারে গ্রাম ছাড়ে দুই অভিযুক্ত।



« (পূর্বের সংবাদ)