মেইন ম্যেনু

ধামরাইয়ে এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ বিএনপি প্রার্থীর

টিপু সুলতান (রবিন) সাভার প্রতিনিধিঃ ইউপি নির্বাচনে চন্দ্রাইল ধামরাইয়ের কুল্লা ইউনিয়নের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সেন্টারে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকজন বিএনপির এজেন্টকে বের করে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে এঘটনায় আওয়ামী লীগ চেয়ারম্যান প্রার্থী কালীপদ সরকারের কর্মী ধামরাই পৌর প্রচার সম্পাদক মো. মতির মন্তব্য ক্যামেরাবন্দী করতে গেলে সাংবাদিকদের ক্যামেরা ছুড়ে ফেলে দেওয়ার হুমকি দেন তিনি। এসময় সাংবাদিক ও পুলিশের সাথেও অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন তিনি।

শনিবার সকালে চন্দ্রাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট সেন্টারে এই ঘটনা ঘটে।
সেন্টারে দায়িত্বপালনরত পুলিশের কর্মকর্তা এসআই নাজমুল ইসলাম জানান, বিএনপি চেয়ারম্যান প্রার্থী আক্কাস আলী ও আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী কালীপদ সরকারের কর্মী মতি নিচেই ছিলেন। এসময় বিএনপি প্রার্থী ছুটে এসে তার এজেন্টদের আওয়ামী লীগের লোকজন বের করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করে।

এরই মধ্যে বিএনপি সমর্থিতদের দুই থেকে তিনশ কর্মী এই ঘটনা শুনে কেন্দ্রের নিকটে এসে মিছিল করতে থাকে। পরে ভোট সেন্টারের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত পুলিশ ও আনসার সদস্যরা তাদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয়। এঘটনার পরপর আওয়ামী নেতা মতির নেতৃত্বে আরো দুই শতাধিব লোক ভোট সেন্টারের সামনে এসে জড়ো হয়। এসময় সেন্টারের সামনে উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করলে মোবাইল কোর্টকে তলব করা হয়। পরে মোবাইল কোর্ট ও নিরপত্তাকর্মীদের সহায়তায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী আক্কাস আলী বলেন, আমাকে উপর থেকে এক জন কর্মী ছুটে এসে এজেন্টকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ করে। পরে কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে এধরনের কোন ঘটনা হয়নি বলে আশ্বস্ত করা হয়।

তবে নির্বাচনী সেন্টারে সাংবাদিকদের সাথে তার কর্মীদের অসৌজন্যমূলক আচরণের ব্যাপারে জানতে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্র্থী কালীপদ সরকারের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও কোন সাড়া মেলেনি।