মেইন ম্যেনু

নকল বন্ধে শুধু অন্তর্বাস পরে পরীক্ষা

ভারতের বিহার রাজ্যে নকল এড়াতে সেনাবাহিনীর একটি নিয়োগ পরীক্ষায় জামা-কাপড় খুলে শুধু অন্তর্বাস পরিহিত অবস্থায় অংশ নিতে হয়েছে পরীক্ষার্থীদের। রোববার মুজাফফরপুরে প্রায় ১১৫০ জন পরীক্ষার্থী খোলা ময়দানে এভাবে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন।

গত বছর বিহারে অনুষ্ঠিত একটি পাবলিক পরীক্ষায় ব্যাপক নকলের অভিযোগ ওঠে। একটি কেন্দ্রের দেয়াল বেয়ে জানালার পাশে দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীদের স্বজনরা নকল সরবরাহ করছিলেন। ওই সময় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে নকলের মহোৎসবের এই ছবিটি প্রকাশ হলে ব্যাপক সমালোচনার ঢেউ ওঠে। শুধু বিহার নয়, উত্তর প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ ও মহারাষ্ট্রেও সরকারি পরীক্ষাগুলোতে ব্যাপক নকল হয়ে থাকে বলে অভিযোগ রয়েছে।

রোববার বিহারের মুজাফফরপুরে সেনাবাহিনীর করণিক পদে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেয় ১১৫০ জন প্রার্থী। কেন্দ্রে প্রবেশের পরপরই পরীক্ষার্থীদের শুধু অন্তর্বাসটি গায়ে রেখে বাকি সব জামা খুলে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয়। মূলত বিপুলসংখ্যক পরীক্ষার্থীর দেহ তল্লাশির ঝামেলা এড়াতেই এ ব্যবস্থা নেওয়া হয় বলে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

সেনাবাহিনীর নিয়োগ বোর্ডের পরিচালক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেছেন, ‘এর আগে পরীক্ষা চলাকালে আমাদের বেশ বাজে অভিজ্ঞতা হয়েছে। নকল বন্ধেই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’