মেইন ম্যেনু

নগ্ন বান্ধবীর ঠোঁটে আঠা ঢেলে দিলেন এই যুবক : তারপর …

যত দিন যাচ্ছে, মানুষ আরও বেশি নৃশংস হয়ে পড়ছে। সেই কথাই আবার মনে করালেন মার্ক ল্যাঙ্কাস্টার নামে ব্রিটেনের এক যুবক। নিষ্ঠুরতার সমস্ত সীমা ছাড়িয়ে গেলেন তিনি। ফাঁকা ঘরে বান্ধবীকে পেয়ে তাঁর সঙ্গে চূড়ান্ত অমানবিক আচরণ করেন মার্ক। প্রচণ্ড নেশার ঘোরেই তিনি এমনটা করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। প্রথমে বান্ধবীর উপর চড়াও হন তিনি।

এরপর ওই যুবতী বাধা দিলে প্রথমে তাঁকে নগ্ন করে প্রচণ্ড মারধর করেন তিনি। যুবতীর মুখে ঘুসিও মারেন। দাঁত ভেঙে যায় যুবতীর। যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকা যুবতী বাথরুমে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেন ভিতর থেকে। তত ক্ষণে পাশের ঘর থেকে আঠা নিয়ে এসেছেন মার্ক। এর পর বাথরুমের দরজা ভেঙে ওই যুবতীর ঠোঁটে আঠা ঢেলে ভাঙা দাঁত জোড়া লাগানোর চেষ্টা করেন তিনি। যুবতীর আর্ত চিৎকার তখন পাড়াপড়শির কানেও পৌঁছেছে। তাঁরা এসে দরজা ভেঙে উদ্ধার করেন ওই যুবতীকে। মার্ককে তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে।

বিচারের পরে বান্ধবীকে নিগ্রহের অভিযোগে ১৬ মাসের জেল হয়েছে মার্কে‌র। আদালতে তিনি জানিয়েছেন, এমনটা ঘটেছে প্রবল নেশার ঘোরেই। তিনি স্বাভাবিক থাকলে এমন কাণ্ড ঘটাতেন না। ওই সময়ে মদ এবং ড্রাগ— দু’য়ের নেশাতে আচ্ছন্ন ছিলেন মার্ক। যদিও ওই যুবতী এই দাবি উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন মাঝেমধ্যেই তাঁর উপর অত্যাচার চালাতেন মার্ক।