মেইন ম্যেনু

নতুন টার্গেট, পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম এই ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়বে ভারত

পরমাণু শক্তিতে একেবারে গোটা ভূখণ্ডকে মুড়ে ফেলতে চাইছে ভারত। ভারতীয় সেনার হাতে আসছে আরও আধুনিক পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম K-4 মিসাইল।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রের খবর, এই মাসের শেষের দিকে গভীর সমুদ্র থেকে সাবমেরিনের সাহায্যে প্রায় ৩৫০০ কিলোমিটার দূরে আঘাত হানতে সক্ষম K-4 এই মিসাইলটির পরীক্ষা করতে চলেছে ডিফেন্স রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেসন (ডিআরডিও)। বঙ্গোপসাগরের বুক থেকে এই মিসাইলের পরীক্ষা চালানো হবে বলে জানা গিয়েছে।

সূত্রে আরও জানা গেছে যে, সবকিছু ঠিক থাকলে ভারতীয় নৌবাহিনীর হাতে থাকা অরিহন্ত সাবমেরিন থেকে এই মিসাইলের পরীক্ষা চালানো হতে পারে। এই মিসাইল শব্দের চেয়েও দ্রুতগতিতে ছুটে গিয়ে আঘাত হানতে পারে। এমনকি, শত্রুর নিখুঁত যে কোনও বস্তুকে হেলায় উড়িয়ে দিতে পারে নয়া এই মিসাইল। পরীক্ষায় উতরে গেলে এই মিসাইলের আওতায় চলে আসবে চিন-পাকিস্তানের একাধিক শহর। ফলে অগ্নি-৪ এবং অগ্নি-৫ এর পর K-4-য়ের ভয়ে রীতিমত কাঁপতে বাধ্য হবে চিন পাকিস্তান।

১২ মিটার দীর্ঘ K-4 মিসাইলটি ২০০০ কেজি পর্যন্ত পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম। এটি ৩৫০০ কিলোমিটার পর্যন্ত যে কোনও লক্ষবস্তুতে নিখুঁত আঘাত হানতে পারে। অত্যন্ত গোপনে তৈরি এই ক্ষেপণাস্ত্রটির প্রথম পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ ২০১৪-র মার্চ মাসে। এই মিসাইলটি ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে চলে এলে ভারত জল, স্থল ও আকাশ থেকে পরমাণু হামলায় সক্ষম হয়ে উঠবে ভারত। শুধু তাই নয়, আমেরিকা চিনের সঙ্গে সমানে টক্কর দিতে পারবে সেনাবাহিনীর নয়া এই মিসাইল।