মেইন ম্যেনু

নতুন বেতন স্কেল মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

সর্বোচ্চ বেতন (গ্রেড-১) ৭৮ হাজার টাকা এবং সর্বনিম্ন (গ্রেড-২০) আট হাজার ২৫০ টাকা নির্ধারণ করে নতুন বেতন কাঠামোর অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ কাঠামোয় আগের মতো ২০টি গ্রেড থাকছে। সচিবালয়ে সোমবার অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভায় এই অনুমোদন দেওয়া হয়।

নতুন বেতন কাঠামোয় মূল বেতনের শতকরা ২০ ভাগ নববর্ষ ভাতা দেওয়ার ব্যবস্থা থাকছে। এ ছাড়া টাইম স্কেল, সিলেকশন গ্রেড ও শ্রেণী প্রথা বাতিল করা হয়েছে নতুন বেতন কাঠামোয়।

গত ১ জুলাই থেকে মূল বেতন এবং আগামী বছরের জুলাই থেকে ভাতা কার্যকর হবে।

মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে অনুষ্ঠিতপ্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা এ তথ্য জানান।

সর্বশেষ ২০০৯ সালের ১ জুলাই সপ্তম বেতন কাঠামো কার্যকর হয়েছিল। ২০১৩ সালের ২৪ নভেম্বর দেশের ১৩ লাখ সরকারি চাকরিজীবীর জন্য ১৭ সদস্যের ‘জাতীয় বেতন ও চাকরি কমিশন-২০১৩’ গঠন করে অর্থ মন্ত্রণালয়। ওই বছরের ১৭ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হওয়া এ কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন।

কমিশনকে ছয় মাসের (২০১৪ সালের ১৭ জুন) মধ্যে সুপারিশসংবলিত একটি প্রতিবেদন তৈরির দায়িত্ব দেওয়া হয়। পরে কমিশনের মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়।

গত বছরের ২১ ডিসেম্বর সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের কাছে প্রতিবেদন তুলে দেন জাতীয় বেতন ও চাকরি কমিশনের চেয়ারম্যান।

বেতন ও চাকরি কমিশন বর্তমান ২০টির পরিবর্তে ১৬টি ধাপে বেতন দেওয়ার সুপারিশ করেছিল। কমিশনের সুপারিশ ছিল সর্বোচ্চ ধাপে ৮০ হাজার টাকা ও সর্বনিম্ন ধাপে আট হাজার ২০০ টাকা।

পরে ৩১ ডিসেম্বর বেতন কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের পদ্ধতি নির্ধারণে প্রতিবেদন পর্যালোচনার জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে সরকার। কমিটিকে ছয় সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছিল। কমিটির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ সময় দুই দফা বাড়ানো হয়।

গ্রেড অনুযায়ী নতুন বেতন কাঠামো দেখতে ক্লিক করুন