মেইন ম্যেনু

নবীর ১১ উপদেশ

শেষ নবী হজরত মুহাম্মদ সা. ছিলেন বিশ্ববাসীর জন্য রহমত স্বরূপ। তিনি সর্বদা উম্মতের কল্যাণে বিভোর থাকতেন। হেরাগুহা ছিল তাঁর ধ্যানের স্থান, যেখানে তিনি চিন্তার উৎস খুঁজে পেতেন। নবুয়াতপ্রাপ্তির আগে মানুষের কল্যাণে তিনি গারে হেরায় বা হেরা গুহায় ধ্যানমগ্ন থাকতেন।

মানবজাতির কল্যাণে তার বর্ণিত হাদিস থেকে নির্বাচিত এগারোটি উক্তি জেনে নিন।

১।যদি পরিপূর্ণ ঈমানওয়ালা হতে চাও, তবে উত্তম চরিত্র অর্জন করো।
২।যদি সবচেয়ে বড় আলেম বা জ্ঞানী হতে চাও, তবে তাকওয়া (আল্লাহ ভীতি) অর্জন করো।
৩।যদি সবচেয়ে বেশি সম্মান পেতে চাও, তবে মানুষের নিকট হাত পাতা (অন্যের ওপর ভরসা করা, ভিক্ষা করা) বন্ধ করে দাও।
৪।যদি আল্লাহর নিকট বিশেষ সম্মান পেতে চাও, তবে অধিক পরিমাণে আল্লাহর জিকির করো।
৫।যদি রিজিকের প্রশস্ততা চাও, তবে সর্বদা অজুর সঙ্গে থাকার চেষ্টা করবে।
৬।যদি সব দোয়া কবুল হওয়ার আশা রাখো, তবে অবশ্যই হারাম থেকে বেঁচে থাকবে।
৭।যদি কেয়ামতের দিন আল্লাহর দরবারে গুনাহমুক্ত উঠতে চাও, তবে সহবাসের পর দ্রুত পবিত্র হয়ে যাবে।

৮।যদি কেয়ামতের দিন আল্লাহর নূর নিয়ে উঠতে চাও, তবে মানুষের ওপর জুলুম করা ছেড়ে দাও।
৯।যদি আল্লাহর প্রিয় বান্দা হতে চাও, তবে আল্লাহর ফরজ বিষয়াদির প্রতি যত্নবান হও।
১০।যদি জাহান্নামের আগুন নিভাতে চাও, তবে দুনিয়ার বিপদাপদে সবর করো।
১১।যদি আল্লাহতায়ালার রাগ বা গোস্বা থেকে বাঁচতে চাও, তবে গোপনে সদকা করো, আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষা করে চলো এবং মানুষের ওপর রাগ করা ছেড়ে দাও।