মেইন ম্যেনু

নব্য জেএমবির এক সদস্যই ২২ হামলায় জড়িত!

নব্য জেএমবির এক সদস্যই একাধিক ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে প্রমাণ পেয়েছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট (সিটি)। এর মধ্যে একজন সদস্য একাই অন্তত ২২টি জঙ্গি হামলার সঙ্গে জড়িত। গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি ও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় হামলার সঙ্গেও জড়িত সে। কল্যাণপুরের জঙ্গি আস্তানায়ও যাতায়াত ছিল তার। মাস্টারমাইন্ডদের একজন এই তরুণের প্রকৃত নাম জাহাঙ্গীর। তবে একাধিক সাংগঠনিক নাম রয়েছে তার। রাজীব বা সুভাষ বা গান্ধী নামেও নব্য জেএমবির মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা তাকে চেনে।

ঢাকার কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বিভিন্ন যেসব ঘটনা ঘটেছে, সেখানে দেখা গেছে, একজনের সম্পর্কে আমরা জানি—সে ২২টি ঘটনার সঙ্গে জড়িত। প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সে এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল। কোনোটিতে নিজে সরাসরি অংশ নিয়েছে। কোনোটিতে অর্থ বা অস্ত্রের জোগান দিয়ে সহায়তা করেছে।

সিটির সূত্র জানায়, জাহাঙ্গীর ওরফে রাজীব ওরফে সুভাষ ওরফে গান্ধী ওরফে আদিল নামে এই তরুণ নব্য জেএমবির উত্তরাঞ্চলের অপারেশন কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে। উত্তরাঞ্চলের রংপুর, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় ভিন্ন ধর্মালম্বী ও মতালম্বী, বিদেশি নাগরিক, উপাসনালয়গুলোয় হামলার সঙ্গে এই রাজীব জড়িত। সাংগঠনিক সিদ্ধান্তে সে বিভিন্ন স্লিপার সেলের কাছে বিভিন্ন নামে পরিচিত হতো। সিটির কর্মকর্তারা জানান, এই রাজীবের বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। তাকে গোয়েন্দা নজরদারিতে রাখা হয়েছে। যেকোনও সময় তাকে গ্রেফতার করা হবে।