মেইন ম্যেনু

নভেম্বরে জিম্বাবুয়েকে আমন্ত্রণ জানাবে বাংলাদেশ

নিরাপত্তার অজুহাত তুলে বাংলাদেশে নির্ধারিত সফর বাতিল করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। যে কারণে বাংলাদেশ ক্রিকেটের বেশ ক্ষতিও হয়েছে বলে উল্লেখ করেছে বিসিবি কর্মকর্তারা। কিভাবে এ ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া যায়, কিংবা বাংলাদেশ যে নিরাপদ, বিদেশী দলগুলোর কাছে এটা কিভাবে প্রমাণ করা যায়, সে বিকল্পও বের করে নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

সে বিকল্প হিসেবে আগামী মাসেই জিম্বাবুয়েকে দুটি টেস্ট খেলার জন্য বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানানোর প্রস্তুতি নিয়েছে বিসিবি। এমনিতেই আগামী বছর জানুয়ারিতে বাংলাদেশে জিম্বাবুয়ের নির্ধারিত একটি সফর রয়েছে। তার আগেই অনির্ধারিত একটি সফরের জন্য জিম্বাবুয়ে দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন।

বুধবার বিকালে মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবির মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় ১২তম বোর্ড সভা। ওখানেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয় জিম্বাবুয়েকে আমন্ত্রণ জানানোর বিষয়টি। সভা শেষে এ সাংবাদিকদের সামনে এ তথ্য প্রকাশ করেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নিজে।

জিম্বাবুয়েকে আমন্ত্রণ জানানোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নভেম্বরে সময়টা ফাঁকা রয়েছে। আমন্ত্রণ জানালে জিম্বাবুয়েও চাইবে এ সময় এসে সিরিজটা খেলে যাওয়ার জন্য। তবে, আমরা এখন নয়, ৯ অক্টোবর দুবাইতে আইসিসির বৈঠকে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডকে সরাসরি আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেবো। আশা করছি, তারা আমাদের প্রস্তাবে রাজি হবে এবং ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ঢাকায় আসবে।’

৯ অক্টোবর আইসিসির বোর্ড সভা। ১০ অক্টোবর রয়েছে এফটিপি (ফিউচার ট্যুর প্ল্যান) নিয়ে আলোচনা। বিসিবি প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, ওই সভায় বাংলাদেশের এফটিপি কিভাবে আরও বাড়ানো যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করবেন তিনি। এমনিতে অস্ট্রেলিয়া আসেনি খেলার জন্য। ২০১৭ সালের আগে বাংলাদেশ সফরের জন্য তাদের সামনে সময়ও নির্ধারণ করা নেই। এর আগে আর কোন সফরের সূচি তৈরী করা যায় কি না তা নিয়েও আলোচনা করা হবে।