মেইন ম্যেনু

নরেন্দ্র মোদির হাতে নগদ মাত্র ৪,৭০০ টাকা!

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সম্পত্তির বর্তমান পরিমাণ ১.৪১ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রীর দফতর সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে মোদির মোট সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ১.২৬ কোটি। সেখানে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে সেই পরিমাণ ১৫ লক্ষ বেড়ে হয়েছে ১.৪১ কোটি। এই সম্পত্তির মধ্যে গান্ধীনগরে ১ কোটি মূল্যের স্থাবর সম্পত্তি রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নামে।

তবে, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হল, ২০১৫ সালের ৩১ মার্চের হিসেব অনুযায়ী, মোদির হাতে মাত্র ৪,৭০০ টাকা নগদ ছিল। তার আগের অর্থবছরে মোদির হাতে ৩৮,৭০০ টাকা ছিল। এখনও পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর নিজস্ব কোনও গাড়ি, বিমান বা বিলাসবহুল তরী নেই। তার হাতে থাকা চারটি সোনার আংটির মূল্য ১.১৮ লক্ষ টাকা। কলকাতার সংবাদমাধ্যম এবিপি আনন্দ এক প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানিয়েছে।

প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, মোদির ব্যাংকে নগদ জমার পরিমাণ ৩১ লক্ষের সামান্য বেশি। এছাড়া তার একটি এলআইসি ও একটি এনএসসি-ও রয়েছে, যার মোট মূল্য সাড়ে ৭ লক্ষ টাকা। ঘোষণাপত্রে জানানো হয়েছে, মোদি কোরও থেকে না ধার নিয়েছেন, না দিয়েছেন। অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী যশোদাবেন-এর সম্পত্তির পরিমাণ ‘জানা নেই’ বলে উল্লিখিত রয়েছে।

মোদির পাশাপাশি, একই সময়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার একাধিক সদস্যের সম্পত্তির পরিমাণও ঘোষণা করা হয়েছে। সেই অনুযায়ী, সবচেয়ে অর্থবান হলেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। তাঁর ঘোষিত মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৭২ কোটির বেশি। বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের মোট সম্পত্তির পরিমাণ ২.৭৩ কোটি থেকে বেড়ে হয়েছে ৪.৫৪ কোটি। তার স্বামী স্বরাজ কৌশলের সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ১৬ কোটি। রবিশংকর প্রসাদ – ২০ কোটি, বেঙ্কাইয়া নাইডু- প্রায় ৩০ লক্ষ, সদানন্দ গৌড় – প্রায় ২ কোটি, স্মৃতি ইরানি- ৪.২৭ কোটি।