মেইন ম্যেনু

নাঈম-শাবনাজের সংসার জীবনের ২৩ বছর

ঢাকাই ছবির নব্বই দশকের তুমুল জনপ্রিয় জুটি ছিলেন নাঈম-শাবনাজ। চলচ্চিত্র নির্মাতা এহতেশাম পরিচালিত ‘চাঁদনী’ ছবির মাধ্যমে এই জুটির অভিষেক হয়। তারপর থেকে রুপালি পর্দায় তারা জুটি বেঁধে দারুণ সাড়া ফেলেন। নাঈম-শাবনাজ অভিনীত অধিকাংশ ছবিই ছিল ব্যবসা সফল।

তার মধ্যেই নাঈম-শাবনাজ একে অন্যের মন রদবদল করেন। তাদের প্রেম পূর্ণতা পায় বিবাহের মাধ্যমে। ১৯৯৪ সালের আজকের এই দিনে (৫ অক্টোবর) তারা দুজন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের ঘরে রয়েছে দুই কন্যাসন্তান। দাম্পত্য জীবনের ২৩ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে জমজমাট কোনো আয়োজনের পরিকল্পনা নেই সুপারহিট এই তারকা জুটির।

তবে শাবনাজ বলেন, ‘পরিবারের সবাইকে নিয়ে সন্ধ্যায় কোথাও ঘুরতে যেতে পারি এবং বাসার বাইরে কোনো রেস্টুরেন্টে খেতে যাওয়ার ইচ্ছা আছে। আর আজ আমাদের ২৩তম বিবাহবার্ষিকী। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন যাতে আমরা সবসময় ভালো থাকি, সুস্থ থাকি।’

এদিকে নাঈম-শাবনাজ অভিনীত প্রথম ছবি ‘চাঁদনী’ ১৯৯১ সালের ২ অক্টোবর মুক্তি পেয়েছিল। সেসময় ছবিটি ছিল দারুণ সুপারহিট। দেখতে দেখতে নাঈম-শাবনাজ অভিনীত চলচ্চিত্র ‘চাঁদনী’র ২৫ বছর অর্থাৎ রজতজয়ন্তীতে পা রেখেছে গেল ২ অক্টোবর। নিজেদের জীবনের প্রথম চলচ্চিত্রের রজতজয়ন্তী উপলক্ষে নাঈম-শাবনাজ এবং ‘চাঁদনী’ পরিবার এবার একটি ভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। ‘চাঁদনী’ ছবির নির্মাণের সঙ্গে জড়িত শিল্পী-কুশলীদের নিয়ে শিগগিরই একটি গেট-টুগেদার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে নাঈম বলেন, ‘দেখতে দেখতে আমাদের ‘চাঁদনী’ মুক্তির ২৫ বছর হয়ে গেছে। চলচ্চিত্রটির নির্মাতা আমাদের গুরু এহতেশাম সাহেব আজ নেই। কিন্তু আমরা দু’জনই তাকে প্রতিনিয়ত অনুভব করি। সত্যি বলতে কী বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে তার যে অবদান তা এড়িয়ে যাওয়ার বা অস্বীকার করার উপায় নেই। ‘চাঁদনী’র রজতজয়ন্তীতে তাই একটি গেট-টুগেদার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। আশা করি এই চলচ্চিত্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকেই নির্ধারিত সময়ে কাছে পাবো, পুরনো দিনের আড্ডায় মেতে উঠবো। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

উল্লেখ্য, নাঈম-শাবনাজ বর্তমানে চলচ্চিত্র ছেড়ে দূরে আছেন। নাঈম মনোযোগী তার ব্যবসা নিয়ে এবং শাবনাজ ব্যস্ত সংসার নিয়ে। তারা জুটি বেঁধে ২০টির মতো ছবিতে অভিনয় করেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ‘জিদ, ‘লাভ, ‘চোখে চোখে, ‘অনুতপ্ত, ‘বিষের বাঁশি’, ‘সোনিয়া’, ‘টাকার অহংকার’, ‘সাক্ষাৎ’ ও ‘ঘরে ঘরে যুদ্ধ’।