মেইন ম্যেনু

নাকের মধ্যে এই ব্যাকটেরিয়া ঢুকলেই মৃত্যু! আক্রান্ত গোটা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া

দক্ষিণ গোলার্ধের একটি বিরাট অংশ, মূলত অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ঘ্রাণ নেওয়ার সঙ্গে এই ব্যাকটেরিয়া ঢুকে পড়ছে নাকে, তার পর নাকের ভিতর দিয়ে মস্তিষ্ক এবং শিরদাঁড়ায়। শরীরের এই দু’টি গুরুত্বপূর্ণে অঙ্গে পৌঁছলেই মারাত্মক হয়ে উঠছে এই ব্যাকটেরিয়া।

এর থেকে খুব সহজেই মৃত্যু ঘটছে রোগীদের। সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-এর খবর, এখনও পর্যন্ত এই রোগে মারা গিয়েছেন প্রায় ৯০ হাজার মানুষ। এতদিন পর্যন্ত গবেষকদের বুঝতে অসুবিধে কীভাবে এই ব্যাকটেরিয়া শরীরকে অকেজো করে দিচ্ছে। কিন্তু গ্রিফিথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক গবেষণাই জানিয়েছে এই ব্যাকটেরিয়া কীভাবে শরীরকে অকেজো করে প্রাণঘাতী হয়ে ওঠে।

এই সাঙ্ঘাতিক ব্যাকটেরিয়া থেকে কীভাবে নিজেকে রক্ষা করা যায়? সব সময় মাস্ক পড়ে বাইরে বেরনো একটি উপায় কিন্তু সেটা তো আর সম্ভব হয় না। তাই যতটা পারা যায়, আবর্জনা রয়েছে এমন জায়গায় না যাওয়া, হাসপাতালে যেতে হলে নাকে রুমাল চাপা দেওয়া ইত্যাদি সাধারণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাই ভাল।