মেইন ম্যেনু

নাতির কোলে চড়ে ভোট দিলেন শত বছরের খাতেমন নেছা

কিশোরগঞ্জ : অষ্টগ্রামের কাগজী গ্রামের খাতেমন নেছা। বয়স শত বছর পেড়িয়ে। বৃদ্ধ হওয়ার পরও ভোট দিতে ভূলে যাননি এই শত বছরের খাতেমন নেছা। বয়সের ভারে নাতির কোলে করে হইতো শেষ ভোট টা দিয়েই গেলো। ঝিরিঝিরি বৃষ্টি তারপরও নাতির কোলে করে এসেই পড়লো অষ্টগ্রাম উপজেলার দেওঘর ইউনিয়নের কাগজী উসমানিয়া মাদ্রাসার ভোট কেন্দ্রে। আর ভোট দিয়েই গেলো। ভোট বলে কথা। একটি ভোটের তো অনেক দাম।

দাম বলেই ভোটটা দিতে কোলে করে নিয়ে আসলো তারই একজন নাতি। তখন নাতিকে জিজ্ঞেস করলে নাতি বলেন, ‘আমার দাদী বাড়িতে শুয়ে আছিন, আমি বাড়িতে গিয়ে দাদীকে আমার কোলে করে ভোট কেন্দ্রে নিয়েই আসলাম। কারন আর একবার নির্বাচন আসতে আসতে পাঁচ বছর পরে। এতদিন যদি আমার দাদী না বাঁচে। তাই আমার কোলে করে নিয়ে আসলাম। তাতে মনে হয় আমার দাদীর মনে শান্তি পাইছে ও খুশীও হইছে। ‘আর দাদীও আমার জন্য মন থাইককা দোয়া করবো’। এইজন্যই নিয়ে আসা আরকি।

নাতীকে তার ভোট দেওয়ার কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, আমার দাদীর ভোট দেওয়ার আগেই আমি ভোট দেয়ে গেছি। কারন আমার দাদীর ভোট দিতে যদি দেরি হয় তখন তো আমার ভোট টা দিতে পারবো না।

এ জন্য আমি আগেই ভোটটা দিয়ে গেছি। শেষ কথা বলতে গিয়ে তিনি কান্না জড়িত ভাবে বলে উঠলেন আমি আমার দাদীকে আমার কোলে করে আনতে পাড়ায় আমি অনেক খুশি। এখন যদি দাদী মড়েও যায় তাহলে আমার কোন আপত্তি নেই। তাই আমি আল্লাহ্র কাছে দোয়া করি আমার দাদীরে যেন আরো বেশীদিন বাঁচিয়ে রাখেন। আমি যেন দাদীর আরো সেবা-যন্ত করতে পারি।