মেইন ম্যেনু

নামি রেস্তোরাঁয় খাচ্ছেন, কি বিপদ হতে পারে জানেন?

রেস্তোরাঁয় খাওয়ার পরে যে বিল আপনি পরিশোদ করছেন, তা কি ঠিকঠাক? না, যা দেয়ার কথা, অজান্তেই তার থেকে অনেক বেশি টাকা দিচ্ছেন? তবে এবার এই বিষয়ে একটু সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

প্রথমেই জেনে রাখুন, সবথেকে জটিল বিষয়টি হল সার্ভিস ট্যাক্স এবং সার্ভিস চার্জ। বলে রাখা প্রয়োজন, সার্ভিস চার্জ-এর সঙ্গে সরকারের কোনো সম্পর্ক নেই। আপনাকে সেবা দেয়ার জন্য রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ ওই টাকাটি নিয়ে থাকেন। এবং তার থেকেও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, সার্ভিস চার্জ কোন রেস্তোরাঁয় কতটা হবে, তা ঠিক করেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষই। ফলে এটা পরিষ্কার যে, পরিষেবার জন্য আপনার থেকে টিপ্‌স আদায় করে নিচ্ছে রেস্তোরাঁ। খামাখা আলাদা করে ওয়েটারকে টিপ‌স দিতে যাবেন কেন? এ ক্ষেত্রে মাথায় রাখুন, মেনু কার্ডে যদি সার্ভিস চার্জ-এর উল্লেখ না-থাকে, তা হলে আপনি তা দিতে অস্বীকার করতে পারেন।

তবে আপনাকে সবথেকে বেশি বোকা বানানো হতে পারে সার্ভিস ট্যাক্স-এর উপর। প্রথমেই জেনে নিন, আইনটি কী? আপনার মোট বিলের ৪০ শতাংশের উপরে ১২.৩৬ শতাংশ সার্ভিস ট্যাক্স বা পরিষেবা কর দিতে হয়। সোজা কথায়, মোট বিলের মাত্র ৪.৯৪ শতাংশের উপর এই পরিষেবা কর দিতে হয়। এবং এই সব প্রশ্ন তখনই আসে, যখন রেস্তোরাঁটি এসি বা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হয়। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে, রেস্তোরাঁগুলি ১২.৩৬ শতাংশ পরিষেবা কর নিচ্ছে। সতর্ক থাকুন।

মনে রাখুন, মূল্যযুক্ত কর বা ভ্যাট সেই সব খাদ্যবস্তুর উপরেই প্রযোজ্য যেগুলি রেস্তোরাঁয় তৈরি করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে অনেক রেস্তোরাঁই যুক্তি দেয়, পানীয়টি গ্লাসে ঢেলে তার উপর বরফ বা সোডা দেয়াটাও ‘তৈরি’ করা। কিন্তু আইন সে কথা বলে না। কারণ, ‘তৈরি’ এবং ‘রান্না’ এক জিনিস নয়। প্যাকেজড ফুট আইটেম বা পানির বোতলের উপর ভ্যাট প্রযোজ্য নয়। তবে এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে ভ্যাট-এর পরিমাণ বদলে যেতে পারে। কেননা, ভ্যাট নিয়ন্ত্রণ করে সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকারগুলি।-এবেলা