মেইন ম্যেনু

নারীরা কখন পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত হয়?

বিয়ের পর পর্নোগ্রাফির প্রতি নারীদের আকর্ষণ বাড়ে। অন্যদিকে, বিয়ের পর পর্নোগ্রাফির প্রতি পুরুষদের আকর্ষণ কমে। নতুন এক গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে।

বিয়ের আগে ও পরে নারী-পুরুষের যৌন আচরণ এবং মনোভাব পরিবর্তনের বিষয়টি জানার জন্য গবেষকরা একশ বিবাহিত নারী ও পুরুষের সাক্ষাৎকার নেন। গবেষণায় অংশগ্রহণকারী ৯ শতাংশ নারী স্বীকার করেছেন, তারা বিয়ের আগে পর্নোগ্রাফি দেখতেন। অন্যদিকে, ২৮ শতাংশ নারী স্বীকার করেছেন, তারা বিয়ের পর পর্নোগ্রাফি দেখেছেন।

পুরুষদের ক্ষেত্রে এর বিপরীত ফলাফল দেখা গেছে। ২৩ শতাংশ বলেছেন, তারা বিয়ের আগে পর্নোগ্রাফি দেখেছেন। আর ১৪ শতাংশ দেখেছেন বিয়ের পর।

যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা গবেষণাটি পরিচালনা করেন। গবেষণা নিবন্ধটি যৌন বিষয়ক একটি জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

তারা বলছেন, গবেষণার ফলাফলে দেখা যাচ্ছে, বিয়ে পর নারীদের পর্নোগ্রাফির প্রতি ঝোঁক বৃদ্ধি পেয়েছে। আর পুরুষদের ক্ষেত্রে তা কমেছে। এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রার্থক্য। উচ্চ মাত্রার যৌন আকাঙ্ক্ষার সঙ্গে পর্নোগ্রাফির সম্পর্ক রয়েছে তা আগেই প্রমাণিত হয়েছে। বিয়ের পর পুরুষরা আর্থসামাজিক অবস্থার কারনে অধিক ব্যস্ত হয়ে পড়ে। তখন তাদের কাছে যৌনতা নিয়ে কল্পনার চেয়ে নারী সঙ্গীর সাহচার্য পাবার বিষয়টি গুরুত্ব পায় বেশি।

গবেষকরা আরও বলেন, নারীদের মধ্যে পর্নোগ্রাফি নিয়ে আগের মত সামাজিক অপরাধ বোধ কাজ করে না। যার কারণে নারীদের মধ্যে পর্নোগ্রাফি দেখার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। সূত্র: দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।



« (পূর্বের সংবাদ)