মেইন ম্যেনু

নার্স নিয়োগে শর্ত শিথিল

সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় শর্ত শিথিল করেছে সরকার। এখন থেকে এ পদের জন্য বিশেষ বা প্রাধিকার কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া গেলে মেধার ভিত্তিতে ওইসব পদ পূরণ করা হবে। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

ব্যাচ, মেধা ও জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগের দাবিতে গেল মার্চ-এপ্রিলে আন্দোলন করেছিল বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ও বেসিক গ্রাজুয়েট বেকার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের নেতাকর্মীরা।

মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, শুধু সিনিয়র স্টাফ নার্স পদে সরাসরি নিয়োগের জন্য অধিক সংখ্যক উপযুক্ত প্রার্থী মনোনয়ন দেয়ার জন্য পদ সংরক্ষণ সংক্রান্ত ৫৯ নম্বর সার্কুলারের শর্ত শিথিল করে বিশেষ বা প্রাধিকার কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া গেলে অপূরণকৃত পদগুলো সাধারণ প্রার্থীদের মধ্য জাতীয় মেধাতালিকার শীর্ষে অবস্থানকারী প্রার্থীদের মাধ্যমে পূরণ করা যাবে।

তিনি বলেন, এ পদে বেশকিছু দিন থেকে কোটার কোনো প্রার্থী না পাওয়ায় ৯ হাজার ৬১৬ পদ পূরণের লক্ষ্যে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে এ লক্ষ্য পূরণ হয়ে গেলে পরে তা বাতিল হয়ে যাবে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ২০১০ সালে ২ ফেব্রুয়ারি জারি করা ৫৯ নম্বর সার্কুলারে বলা হয়, শূন্য পদ পূরণের ক্ষেত্রে বিশেষ কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া গেলে ওই প্রাধিকার বা বিশেষ কোটায় অপূরণকৃত পদ সংরক্ষণ করতে হবে। ৩ হাজার ৬১৬টি সিনিয়ন স্টাফ নার্সের শূন্য পদ পূরণের জন্য ২৮ মার্চ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল পিএসসি।