মেইন ম্যেনু

নায়িকা পপির ‘বিয়ে হলো বাসর হলো না’

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভীন পপি পুনরায় চলচ্চিত্রে সরব হয়ে উঠেছেন। ১৯৯৭ সালে ‘কুলি’ ছবির মাধ্যমে পপির রুপালি পর্দায় অভিষেক ঘটে। এরপর তিনি শতাধিক জনপ্রিয় ছবি দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। তা ছাড়া চলচ্চিত্রে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য ইতোমধ্যেই তিনি তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছেন।

বর্তমান এম জসীম উদ্দিনের ‘আমেরিকান ড্রিম’ ও কাজী হায়াতের ‘বিয়ে হলো বাসর হলো না’ ছবির কাজ নিযে ব্যস্ত রয়েছেন পপি।

পপি জানান, তিনি বেশ কিছু দিন চলচ্চিত্র থেকে দূরে ছিলেন। তবে এ ছবি তিনটি তার ক্যারিয়ারের জন্য শুভ বার্তা বয়ে নিয়ে আসবে। এর মধ্যে ‘সোনা বন্ধু’ ও ‘বিয়ে হলো বাসর হলো না’ ছবি দুটির শুটিং ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে। পাশাপাশি গত সপ্তাহে পপি ‘আমেরিকান ড্রিম’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। অচিরেই এর শুটিং শুরু হবে। এ ছবির নির্মাতা এম জসীম উদ্দিন জানান, বর্তমানে চলচ্চিত্রের অন্য শিল্পীদের চূড়ান্ত করার কাজ চলছে। ছবিটি ইংরেজি ভাষায় নির্মিত হবে। পরে বাংলায় ডাবিং করা হবে। আগামী বছর এটি মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

এদিকে, কিছু দিন আগে টাঙ্গাইলে ‘সোনা বন্ধু’ ছবির দৃশ্য ধারণ শুরু হয়েছে। মাহবুবা শাহরীনের গল্প অবলম্বনে ছবিটির সংলাপ ও চিত্রনাট্য রচনা করেছেন রুবেল। এ ছবিতে পপি রোশন চরিত্রে অভিনয় করছেন। অন্যদিকে, ‘বিয়ে হলো বাসর হলো না’ ছবির শুটিং মাঝে থমকে গিয়েছিল। তবে পুনরায় এর কাজ শুরু হয়েছে। এ ছবিতে পপির বিপরীতে অভিনয় করছেন জায়েদ খান ও আমান খান।

বর্তমানে পপির অর্ধ ডজন ছবি মুক্তির মিছিলে রয়েছে। তবে এগুলো কবে নাগাদ মুক্তি পাবে তা এখনো জানা যায়নি। তার অভিনীত মুক্তিপ্রতীক্ষিত ছবির মধ্যে রয়েছে_ ‘পৌষ মাসের পিরিতি’, ‘শর্টকাটে বড়লোক’, ‘দি ডিরেক্টর’, ‘লীলামন্থন’, ‘দুই ভাইয়ের যুদ্ধ’ ও ‘জীবন যন্ত্রণা’। সর্বশেষ ১ মে পপি অভিনীত ‘দুই বেয়াইয়ের কীর্তি’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়।