মেইন ম্যেনু

নিজামীকে কি বাঁচানোর কেউ নেই?

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জামায়াতের আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীকে কি বাঁচানোর কেউ নেই? এমন মন্তব্য করলেন- সাবেক সংসদ সদস্য মেজর (অব.) মো. আখতারুজ্জামান। তিনি বলেন, নিজামীর জন্য টু শব্দ করার ক্ষমতা কারো নেই! আগামী দিনে আমাদেরকে বাচাবে কে? আমরাতো প্রায় সবাই আদালতের কাঠগড়ার আসামি।

মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি এসব কথা বলেন।

ফেসবুক ওয়ালে আখতারুজ্জামান লিখেছেন, সময় দ্রুত চলে যাচ্ছে। দিন দিন জাতীয়তাবাদী শক্তিকে দুর্বল করা হচ্ছে। জামায়াতের ক্ষমতাসীন আমিরের ফাঁসি হয়ে যাচ্ছে। অসহায় বর্ষীয়ান ইসলামিক নেতাকে বাঁচানোর কেউ নাই! তার জন্য টু শব্দ করার ক্ষমতা কারো নাই! আগামী দিনে আমাদেরকে বাচাবে কে? আমরাতো প্রায় সবাই আদালতের কাঠগড়ার আসামি। উশৃঙ্খল দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের দিয়ে কি নিজেদেরকে রক্ষা করা যাবে? নাকি ভানুর বিখ্যাত কৌতুকের মত বলতে হবে” তুমি ঝুলে পর আমি আছি”।

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, দলের সম্মেলন হয়ে যাওয়ার পরে সকল কমিটি আপনা আপনি বিলুপ্ত হয়ে যায়। দলের নির্বাহী কমিটি, স্থায়ী কমিটি, এমন কি চেয়ারম্যানের পদও বিলুপ্ত হয়ে যায়। যার জন্য সম্মেলনের সময়ই চেয়ারপারসন ও ভাইস চেয়ারম্যানের পদে নির্বাচনের মাধ্যমে পদায়ন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে কাউন্সিল ম্যাডামকে সকল কমিটি এককভাবে করার ক্ষমতা দিয়ে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাই যতক্ষণ পর্যন্ত ম্যাডাম নতুন পুর্ণাঙ্গ নির্বাহী কমিটি ও স্থায়ী কমিটি ঘোষণা না করবেন ততক্ষণ পর্যন্ত ওই কমিটি গুলোকে বৈধ বলা সমুচিন বা সন্মানজনক হবে না।

বর্তমানে এই সব পদে যারা গায়ের জোরে আসীন আছেন তারা এই ব্যাপারে দ্বিমত পোষণ করবেন যা খুবই স্বাভাবিক। তাই তারা ম্যাডামকে এই ধরনের স্বেচ্ছাচারী কাজে উৎসাহ যোগাবেন তাতে কোন সন্দেহ নাই। কিন্তু তার মানে কি কালো সাদা হয়ে যাবে!