মেইন ম্যেনু

নিজামীর জানাজা পড়াবেন ভাতিজি জামাই

মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি কার্যকরের পর তার জানাজা পড়াবেন তারই ভাতিজি জামাই স্থানীয় আতাইকুলা মাদরাসার সুপারিনটেন্ডেন্ট ক্বারি আহম্মদুল্লাহ।

মঙ্গলবার রাত পৌনে ১০ টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নিজামীর ভাতিজা আব্দুর রহিম খান। ইতোমধ্যে নির্ধারিত কবরস্থানসহ সংশ্লিষ্ট জায়গাগুলো পরিদর্শন করেছেন উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এদিকে, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় দুই প্লাটুন বর্ডার গার্ড সদস্যদের (বিজিবি) মোতায়েন করা হয়েছে নিজামীর নিজ এলাকা সাঁথিয়ায়।

নিজামীর ভাতিজা আব্দুর রহিম খান বলেন, নিজামীর নিজ এলাকা পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার মনমথপুর মাদরাসা মাঠে তার নামাজে জানাজো করার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুমতি চেয়েছিলাম। তারা অনুমতি দিয়েছে। তিনি বলেন, আতাইকুলা মাদরাসার সুপারিনটেন্ডেন্ট ক্বারী আহম্মদুল্লা নিজামীর এই নামাজে জানাজা পড়াবেন। ক্বারি আহম্মদুল্লাহ সম্পর্কে নিজামীর ভাতিজি জামাই।

রাত ৯ টায় নিজামীর নিজ এলাকা সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, রাস্তাঘাট জনমানব শূন্য। অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ হয়ে গেছে। দুই একটি চায়ের দোকান শুধু খোলা রয়েছে। টেলিভিশনের পর্দার দৃষ্টি রয়েছে দোকানের সামনে জটলা করা মানুষের। তারা উদ্বিগ্ন কখন নিজামীর ফাঁসির রায় কার্যকর হচ্ছে এমন তথ্য জানার ও দেখার জন্য।

সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাত সাড়ে ৯ টায় উপজেলার ডাকবাংলোতে উপস্থিত হলে সার্বিক পরিস্থিতি বিষয়ে তিনি জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। যখন যে নির্দেশনা আসছে, তখন সেই নির্দেশনার আলোকেই আমরা এগুচ্ছি।

সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, নিজামীর মরদেহ আসার পর কোথায় জানাজা হবে, কোথায় তাকে দাফন করা হবে সেই জায়গাগুলো ইতোমধ্যেই পরিদর্শন করেছি।

পাবনার পুলিশ সুপার আলমগীর কবির রাত ১০ টায় জানান, যে কোনো ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশের বিভিন্ন স্তরের নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েনের পাশাপাশি বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। দুই প্লাটুন বিজিবি নিজামীর নিজ এলাকায়ে মোতায়েন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মৃত্যুর শেষ ইচ্ছে বাবা মায়ের পাশে করবস্থ হওয়া আর হচ্ছে না জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর। তাকে কবরস্থ করা হচ্ছে তার মামার কবরের পাশে। এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন তার ভাতিজা আব্দুর রহিম খান।