মেইন ম্যেনু

নিজামীর মৃত্যুদণ্ডে ভারতের সমর্থন

মুক্তিযুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতের আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে ভারত। এতে জানানো হয়েছে, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে সংগঠিত যুদ্ধাপরাধের বিচার প্রক্রিয়া সমর্থন করে দেশটি।

বিষয়টিকে বাংলাদেশের ‘আভ্যন্তরীণ ইস্যু’ উল্লেখ করে এই বিচারে বাংলাদেশে ব্যাপক জনসমর্থন রয়েছে বলে জানায় ভারত। বৃহস্পতিবার এক প্রশ্নের জবাবে ভারতের বিদেশ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বিকাশ স্বরূপ সাংবাদিকদের বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধ বিচারের বিষয়টি বাংলাদেশের আভ্যন্তরীণ ব্যাপার। দেশটিতে এর ব্যাপক জনসমর্থন রয়েছে।’

এর আগে মঙ্গলবার রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিজামীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ২০১৪ সালের ২৯ অক্টোবর নিজামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। রায়ের বিরুদ্ধে ২৩ নভেম্বর আপিল করেন নিজামী। তবে সর্বোচ্চ সাজা হওয়ায় আপিল করেননি রাষ্ট্রপক্ষ।

নিজামীর আপিল শুনানি শেষে ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে গত ৬ জানুয়ারি সংক্ষিপ্ত আকারে চূড়ান্ত রায় দেয় প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ। গত ১৫ মার্চ আপিল মামলাটির ১৫৩ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করে সর্বোচ্চ আদালত।

এদিকে রায় কার্যকরের পর নিজামীকে ‘পরম বন্ধু’ আখ্যা দিয়ে এর তীব্র প্রতিবাদ জানায় পাকিস্তান। এছাড়া তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান এক বিবৃতিতে নিজামীকে ‘নিষ্পাপ’ আখ্যা দিয়ে ফাঁসির বিরোধীতা করেন। বৃহস্পতিবার ঢাকায় নিযুক্ত রাষ্ট্রদূতকেও প্রত্যাহার করে নিয়েছে তুরস্ক।



« (পূর্বের সংবাদ)