মেইন ম্যেনু

নিজামীর রায়ের পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক

জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির রায়কে কেন্দ্র করে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল, উচ্চ আদালত, সচিবালয়সহ গুরুত্বপূর্ণস্থানে অতিরিক্তি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, বিভিন্ন স্থানে জোরদার করা হয়েছে টহল ব্যবস্থা। এ ছাড়া সাদা পোশাকের গোয়েন্দারা বিভিন্ন এলাকায় নজরদারিতে নেমেছেন ।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালসহ আশপাশের এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সঙ্গে র‌্যাবকে ওই এলাকায় টহল দিতে দেখা গেছে। আর ট্রাইব্যুনালে ঢুকতে নিরাপত্তা গেটে আগতদের তল্লাশি করছিল দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা। নিরাপত্তার স্বার্থে দোয়েল চত্বর থেকে সচিবালয় সংযোগ রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

রমনা জোনের পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) আব্দুল রাতেন বলেন, ‘নিরাপত্তার স্বার্থে যা যা করণীয় তার সবকিছুই করা হয়েছে। একইসঙ্গে পুরো এলাকাকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়। তবে তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।’

পুলিশ জানায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ও তার আশপাশের স্থান, জাতীয় জাদুঘর, ধানমন্ডি, সচিবালয়, আদালত, মন্ত্রীপাড়া, গুলশান, বনানী, বারিধারাসহ কূটনীতিক এলাকার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এসব এলাকায় পুলিশ বাড়ানো হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন জায়গায় সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ মোড়, প্রধান প্রধান সড়কে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নিয়োজিত ছিলেন।

ডিএমপি মিডিয়ার শাখার প্রধান (ডিসি) মো. মারুফ হোসেন সরদার বলেন, ‘অপরাধীরা বসে থাকবে তা ভাবা যায় না। মূলত এ কারণেই আগাম সতর্ক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে কেউ যেন হয়রানির শিকার না হয় সেজন্য প্রতিটি থানার অফিসার ইনচার্জদের (ওসি) কঠোরভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’