মেইন ম্যেনু

নিরপেক্ষ রাষ্ট্রের পূর্বশর্ত বিচার বিভাগের স্বাধীনতা

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, ‘বিচার বিভাগের স্বাধীনতা একটি নিরপেক্ষ রাষ্ট্রের পূর্বশর্ত। একটা জাতি কত উন্নত তা পরিমাপ করা হয় সে দেশের আইনের শাসন কতটা পুষ্ট তা দিয়ে।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগেরহাট আইনজীবী সমিতি ভবনে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘যে দেশে আইনের শাসন নেই, সে দেশ যত উন্নত হোক না কেন, যত টাকা পয়সার মালিক হোক না কেন মর্যাদা পাবে না। যেমন দেখুন চীন। তারা যতই টাকার মালিক হোক না কেন তাদের ডেমোক্রেসি নেই। আইনের শাসন নেই। অথচ আমেরিকায় আইনের শাসন আছে, ডেমোক্রেসি আছে। তারা আজ বিশ্বে উন্নত।’

তিনি বলেন, ‘যে দেশে আইনের শাসন আছে, ডেমোক্রেসি আছে তারা বিশেষ মর্যাদা পাচ্ছে।’

উদাহরণ হিসেবে তিনি ফ্রান্স, ইন্দ্রনেশিয়া, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও ভারতের কথা বলেন।

এসকে সিনহা বলেন, ‘আমরা যতটুকু আইনের শাসনে বিশ্বাষ করি, জনগণ যতটুকু অধিকার পাই। ততটুকু অধিকার তাদের দেশে পাই না। আমাদের দেশের জনগণ সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে। সেটা রুজুও করতে পারে। তারা যদি দেখাতে পারে অধিকার থেকে বঞ্চিত রাখা হয়েছে তা হলে বিচারকগন স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারে। অথচ সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধান বিচারপতিকে তুচ্ছ ঘটনায় কারাবরণ করতে হচ্ছে। সেখানে আইনের শাসন কত সুষ্পষ্ট। সেই তুলনায় আমরা আইনের শাসনের ক্ষেত্রে বলতে পারি পৃথিবীতে যতগুলি মুসলিম রাষ্ট্র আছে আমরা আইনের শাসনে সবার ওপরে।’

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃব্য দেন বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মীর শওকাত আলী বাদশা, বাগেরহাট জেলা ও দায়রা জজ মিজানুর রহমান খাঁন, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট একেএম আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জাহিদ হোসেন প্রমুখ।