মেইন ম্যেনু

নিলয় হত্যায় জড়িতদের নাম জানা গেছে

ব্লগার নীলাদ্রি চট্টোপাধ্যায় নিলয় হত্যায় জড়িত থাকতে পারে, এমন আরো কয়েকজনের নাম জানা গেছে। তারাও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য। রিমান্ডে থাকা মাসুদ রানা ও সাদ আল নাহিয়ানকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এসব নাম পাওয়া গেছে।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা বলেছে, নিলয়কে হত্যা করা যথার্থ হয়েছে। তিনি যে ধরনের লেখালেখি করতেন তাতে তাকে মেরে ফেলাটা সঠিক হয়েছে।

তবে রানা ও নাহিয়ান এই হত্যাকাণ্ডে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা এখনো স্বীকার করেনি। রোববার বিকেলে রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম-কমিশনার মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।

তিনি বলেন, নিলয় হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে মাসুদ রানা ও সাদ আল নাহিয়ানকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তারা দুজন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সক্রিয় ও সিনিয়র সদস্য। তারা আরেক ব্লগার আসিফ মহিউদ্দিন হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি ছিল। ওই মামলায় গ্রেফতার হয়ে নাহিয়ান আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছিল। রানাও একাধিক মামলায় গ্রেফতার হয়েছিল। তারা দুজনই জামিনে জেল থেকে বেরিয়ে এসে অন্য ব্লগারদের হত্যার পরিকল্পনার করেছিল বলে স্বীকার করেছে।

মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘তারা দুজন জিজ্ঞাসাবাদে অনেকের নাম বলেছে। আমরাও তদন্তে কিছু নাম পেয়েছি। সবকিছু মিলে আসামিদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে। তারা যাদের নাম বলেছে তাদের ব্যাপারেও তদন্ত করা হচ্ছে।’

প্রসঙ্গত, গত ৭ আগস্ট দুপুরে রাজধানীর খিলগাঁও থানাধীন পূর্ব গোড়ান এলাকার ভাড়া বাসায় নীলাদ্রি চট্টোপাধ্যায় নিলয়কে কুপিয়ে হত্যা করে জঙ্গিরা। ঘটনার রাতেই নিলয়ের স্ত্রী আশামনি বাদী হয়ে খিলগাঁও থানায় একটি মামলা করেন। ঘটনার ছয় দিন পর গত বৃহস্পতিবার রাতে হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে দুজনকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ।