মেইন ম্যেনু

নিষিদ্ধপল্লির এই ঘরে আজও ঘুরে বেড়ায় অতৃপ্ত আত্মা

মুম্বাইয়ে কামাতিপুরা বলতেই সবার আগে মাথায় আসে এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম নিষিদ্ধপল্লির কথা। দিন-রাত এই নিষিদ্ধপল্লিতে চলছে মানুষের আনাগোনা। কিন্তু এ তল্লাটে মনোরঞ্জনের আড়ালে রয়েছে এক ভয়ঙ্কর কাহিনি। গোটা এলাকা জুড়ে অবশ্য নয়। বিশেষ একটি স্থানে এখনও বিশেষ কয়েকজন খদ্দেরের অপেক্ষায় বসে থাকেন এক মৃত নারী।

ভারতে ইংরেজের রাজত্বকালে ব্রিটিশ সেনাদের নিয়মিত যাতায়াত ছিল কামাতিপুরার নিষিদ্ধপল্লিতে। সেই সময় রাশিয়া ও জাপান থেকে মহিলাদের জোর করে ধরে নিয়ে এখানে ওইসব করাতে বাধ্য করা হতো৷ সেই মহিলারা আর কোনওদিনও নিজেদের বাড়ি ফিরে যেতে পারেননি। এই এলাকাতেই তাদের জীবন শেষ হয়ে গিয়েছিল।

স্থানীয়রা অনেকে বলেন, ২৫ নম্বর পল্লীতে এখনও এক মৃত মহিলাকে রাতে দেখা যায়। তার অতৃপ্ত আত্মা এখনও এই ঘরের চার দেওয়ালেই বন্দি হয়ে রয়ে গিয়েছে। অনেক খদ্দেরই সেই অশরীরীর লালসার শিকার হন। অনেক সময় এই অশরীরীর ভয়ে খদ্দেররা সেই এলাকা থেকে ভয়ে পালিয়েও যান। নিষিদ্ধপল্লীর চড়া মেকআপের আড়ালে লুকিয়ে থাকা আতঙ্ক এখনও তাড়া করে বেড়ায় আগত অনেক পুরুষকে।