মেইন ম্যেনু

নিহতদের ৩ জন যুক্তরাষ্ট্রে পড়তেন

গুলশানের হলে আর্টিসান বেকারিতে নিহত ২০ জিম্মির মধ্যে তিনজন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ছিলেন। এছাড়া নিহত ইতালিদের মধ্যে অনেকেই পোশাকশিল্প খাতে কর্মরত ছিলেন। জাপানি ত্রাণকর্মীও ছিলেন নিহতদের মধ্যে।

নিহত আবিন্তা কবীর (১৮) জন্মসূত্রে বাংলাদেশী হলেও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ছিলেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ায় অবস্থিত এমোরি ইউনিভার্সিটির অক্সফোর্ড কলেজ ক্যাম্পাসে স্নাতক শ্রেণিতে পড়াশোনা করছিলেন।

আবিন্তা ছাড়াও এমোরির আরেক শিক্ষার্থী ফারাজ হোসেনও (২০) হামলায় মারা যান। তিনি বাঙালি হলেও তার নাগরিকত্ব নিশ্চিত করেনি পরিবার।

আবিন্তা এবং ফারাজ ওই রেস্টুরেন্টে রাতের খাবারের জন্য দেখা করেছিলেন। তাদের পরিবার বাংলাদেশের বৃহত্তম দু’টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গ্রুপের মালিক।

এমোরি ইউনিভার্সিটির প্রকাশিত বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আবিন্তা বিশ্ববিদ্যালয়ে দ্বিতীয় বর্ষের একজন মেধাবী শিক্ষার্থী ছিলেন। অন্যদিকে ফারাজ অক্সফোর্ড কলেজে গ্র্যাজুয়েশন শেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোইজুয়েটা বিজনেস স্কুলে পড়ছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রে পড়ুয়া তৃতীয় নিহত জিম্মি ছিলেন তারুশি জৈন (১৮)। ভারতীয় নাগরিক তারুশি ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া-বার্কলির শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি ব্যবসায়ী বাবার সঙ্গে দেখা করতে বাংলাদেশে এসেছিলেন বলে জানায় বার্তা সংস্থা এপি।