মেইন ম্যেনু

নীলফামারীতে বিভিন্ন শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীর প্রতিবাদ

হামিদা আক্তার বারী, ডিমলা করেসপন্ডেট, নীলফামারী : নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় ” জন্মসূত্রে বাংলাদেশী হলেও সুযোগ সুবিধা গ্রহন করছে বিলুপ্ত ছিট মহলের” সংবাদের একাংশের প্রতিবাদ করেছেন উক্ত ছিট মহলের বাসিন্দা হামিদুর রহমানের পুত্র মিজানুর রহমান মাষ্টার। তিনি একটি প্রতিবাদ লিপিতে উলে¬খ করেন, উক্ত শিরোনামের সংবাদটি বিভিন্ন অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়। সংবাদটিতে সংবাদকর্মী যে সব সুযোগ সুবিধার কথা উলে¬খ করে খবর প্রকাশ করেছেন তা সম্পূন রুপে সঠিক নয়। প্রকৃত ঘটনা হলো- আমি উপজেলার গয়াবাড়ী ইউনিয়নের জন্ম সূত্রে ২৯ নং বিলুপ্ত ছিট মহল বড় খানকি খারিজা গিতালদহের বাাসিন্দা। কিন্তু সেটি ভারত সরকারের আওতাধীন থাকায় আমরা দীর্ঘদিন ধরে লাঞ্চনা বঞ্চনার শিকার হয়ে অতি কষ্টে দিনাতিপাত করে আসতেছিলাম। কিন্তু উক্ত ছিট মহলে পৈত্রিক ও জন্ম সূত্রে বাসিন্দা হওয়ায় আমরা ছিটমহলবাসী বাংলাদেশের সকল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছিলাম। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জন নেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ট নেতৃত্বে ভারত সরকারের সাথে চুক্তিকরে ছিটমহলগুলি বিনিময় করেন। ফলে ২০১৫ সালে ১ লা আগষ্ট থেকে ছিটমহলগুলি বিলুপ্ত হয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ”বাংলাদেশ” নামের পরিচয় পায়। যেহেতু আমি জন্মসূত্রে উক্ত ছিটমহলের বাসিন্দা এবং পৈত্রিক সূত্রে জায়গা জমির মালিক ছিলাম সেহেতু বর্তমান সরকারের পক্ষে মাঠ জরিপে আমার দখলে থাকা পৈত্রিক সম্পত্তি আমার ও আমার পরিবারের নামে করা হয়। তাছাড়া বিলুপ্ত ছিট মহলগুলির সম্পত্তি যার যার দখলে ছিল ঐসব জমি তাদের নামে দেয়া হয়েছে সরকারীভাবে। সেই কারনে উক্ত বিলুপ্ত ছিটমহলে জমির মালিক হয়েছি আমি। কিন্তু এলাকার একটি কু-চক্রি মহল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে সংবাদে প্রকাশ করিয়েছেন যে,আমি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা গ্রহন করছি। যা সম্পূর্ন্ন মিথ্যা। এখন পর্যন্ত আমি কোন প্রকার সুযোগ সুবিধা গ্রহন করিনি। এলাকার ঐ মহলটি আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে এবং আমার মানসম্মান ক্ষুণ্য করতেই সংবাদকর্মীকে ভূল বুঝিয়ে মিথ্যা তথ্য দিয়ে এহেন সংবাদ পরিবেশন করিয়েছেন। যার তিব্র প্রতিবাদ করছি। সেই সাথে সংবাদকর্মীকে আরো যতœবান হয়ে সংব্দা সংগ্রহ করে তা পরিবেশনের জন্য অনুরোধ করছি।

প্রতিবাদকারী

মোঃ মিজানুর রহমান
পিতা- হামিদুর রহমান
২৯ নং বিলুপ্ত ছিট মহল
বড় খানকি খারিজা গিতালদহ
ডিমলা-নীলফমারী ।