মেইন ম্যেনু

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে সাংবাদিকদের সহায়তায় অসহায় প্রবীণ ফিরে পেলেন সহায় সম্বল

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় সাংবাদিকদর সহায়তায় বারমারী গ্রামের রমিজ উদ্দীন (৮২) ফিরে পেলেন তাঁর শেষ সহায় সম্বল। সোমবার বিকালে উত্তর বারমারী গ্রামে পারিবারিক এক সমঝোতার মাধ্যমে এ বিষয়টি নিষ্পন্ন হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ তাঁর একমাত্র ছেলে আলমাছ মিয়া (২৮) বিয়ে করে বউকে নিয়ে আলাদা বাড়ীতে থাকে। বৃদ্ধ বাবা মা‘র খবর মাঝে মধ্যে নিলেও শারীরিক নানা সমস্যায় ভোগেন তাঁরা। এরই সুযোগে রমিজ উদ্দীন এর সামান্য জমি নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্থানীয় কৃষক দীর্ঘদিন জোর পুর্বক দখলকরে চাষ করছেন। দুর্গাপুর প্রেসক্লাব‘র কয়েকজন সাংবাদিক পেশাগত কাজে ঐ এলাকায় গেলে অসহায় রমিজ উদ্দীন কান্না জড়িত কন্ঠে তাঁর অসহায়ত্বের কথা বলেন, স্থানীয় ইউ.পি সদস্য শামছুল আলমকে নিয়ে সাংবাদিক নিতাই সাহা, নির্মলেন্দু সরকার বাবুল, মাছুম বিল্লাহ্, ধ্রুব সরকার আলোচনার মাধ্যমে দখলমুক্ত করেন জমি ও ভিটেমাটি।

এ বিষয়ে সাংবাদিক নিতাই সাহা বলেন, গত ২৩ নভেম্বর নেত্রকোনায় ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এর অর্থায়নে হেল্পএইজ এর সহায়তায় সাংবাদিকদের কর্মশালায় অংশ নিয়ে প্রবীণ অধিকার বিষয়ে আমার চোখ খুলে গেছে। কাজেই প্রবীণদের নানাবিধ সমস্যায় সমাজের সকল শ্রেনী পেশার মানুষকে নিজ দায়িত্বে এগিয়ে আসতে হবে।