মেইন ম্যেনু

নেত্রকোনায় যুব স্বপ্ন উৎসব উদযাপন

নেত্রকোনায় বেসরকারি উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক, নেত্রকোনা সম্মিলিত যুব সমাবেশ ও সমকাল সুহৃদ সমাবেশ আয়োজিত স্থানীয় ২৫টি যুব সংঘঠনের হাজারো স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়–য়া হাজারো ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতিতে নেত্রকোনা পাবলিক হল মিলনায়তনে দিনব্যাপি এক যুব স্বপ্ন উৎসব ২০১৫উদযাপন উদযাপিত হয় সোমবার।

ভাষা আন্দালন, মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনে তারুন্যই বারবার দিয়েছে স্বদেশের মুখ উজ্জল করে। এরই ধারা বাহিকতায় বারসিক এলাকা সমন্বয়কারী অহিদুর রহমান এর সভাপতিত্বে দিনব্যাপি অনুষ্ঠান উদ্ভোধন করেন অধ্যাপক যতিন্দ্র সরকার।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড. আব্দুর রহিম অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যাপক মতিন্দ্র সরকার, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর উপপরিচালক জনাব মিজানুর রহমান, সমাজসেবা কর্মকর্তা জনাব শহীদুল্লাহ, প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ড. মোঃ জাকির হোসেন, নেত্রকোনা জেলা সমকাল সুহৃদ সমাবেশ সমন্বয়ক অধ্যাপক তপন সাহা, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক হায়দার জাহান চৌধুরী, নেত্রকোনা সম্মিলিত যুব সমাবেশ সমন্বয়ক তপতী শর্মা, বারসিক সমন্বয়কারী সৈয়দ আলী বিশ্বাস, ফেরদৌস আলম উজ্জল, ফেরদৌসী আক্তার রিতা, বারসিক কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর, হেপি রায়, পার্বতী সিংহ, রুকসানা রুমী প্রমুখ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন রনী খান। যুবকদের উদ্দেশ্যে জীবন সংগ্রামে সফলতার কথা তুলে ধরে আলোচনা করেন, বাউল নুরুল ইসলাম, জানমা মৎস সংঘঠনের সভাপতি যোগেশ বর্মন, হাবাদা সংগঠনের সভানেত্রী হাওয়া আক্তার। যুব সমাবেশে উপস্থিত যুবকরা নেত্রকোনার উন্নয়নের জন্য শিক্ষা ও সংস্কৃতির উন্নয়নে ১৫টি দাবী তুলে ধরে।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, একটি উন্নয়ন সংগঠনের প্রধান কাজ হচ্ছে মানুষের ভেতরের শক্তিকে জাগিয়ে তোলা, তাদের ভেতরে আত্মবিশ্বাস জন্মাতে হবে, যেন নিজেরাই নিজেদের সমস্যা সমাধান করতে সক্ষম হয়। আজকের তরুন সমাজই পারে আমাদের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে।

আমি বারসিক কে ধন্যবাদ দেই এ ধরনের আয়োজন করার জন্য। সন্ধ্যায় বিভিন্ন সংগঠনের পরিবেশনায় নবীণ প্রবীণ নিয়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতা, প্রবীণ অধিকার নিয়ে সুরক্ষা নিয়ে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক নাটক ও যুবকদের মাঝে প্রবীণ বান্ধব বিভিন্ন ষ্টিকার বিতরনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।