মেইন ম্যেনু

নেপালে ২৬ বছরে ২৪ বার প্রধানমন্ত্রী বদল

১৯৯০ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত মোট ২৬ বছরে নেপালে প্রধানমন্ত্রী বদল হয়েছে মোট ২৪ বার। আজ বুধবার নেপালের পার্লামেন্টে ভোটাভুটির পর নেপালের মাওবাদী দলের প্রধান পুষ্প কমল দহল প্রচণ্ডের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর এ তথ্য জানিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

সংবাদমাধ্যমটি জানায়, সাত বছর ব্যবধানে এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো নেপালের প্রধানমন্ত্রী হলেন পুষ্প কমল দহল। পার্লামেন্টে ভোটাভুটিতে আইনপ্রণেতাদের মধ্যে পুষ্প কমল দহলের পক্ষে ভোট দেন ৩৬৩ জন এবং বিপক্ষে দেন ২১০ জন। দেশের সবচেয়ে বড় দল নেপালি কংগ্রেসের সমন্বয়ে গঠিত জোট সরকারের নেতৃত্ব দেবেন দহল। আজ রাতে দেশটির রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ে শপথ নেবেন তিনি।

নেপালের পার্লামেন্টের স্পিকার ওনসারি ঘারতি ফলাফল ঘোষণা দিয়ে বলেন, ৫৯৮ জন আইনপ্রণেতার মধ্যে ৫৭৩ জন ভোট দিয়েছেন। বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী কেপি ওলির নেতৃত্বাধীন নেপালের ঐক্যবদ্ধ মার্কসবাদী-লেনিনবাদী কমিউনিস্ট (সিপিএন-ইউএমএল) ও রাষ্ট্রীয় প্রজাতন্ত্র পার্টি-নেপাল এর বিপক্ষে ভোট দেয়।

নেপালে রাজতন্ত্র হঠিয়ে গণতান্ত্রিক যুগ শুরুর পর ২০০৮ সালের ২৮ মে গিরিজা প্রসাদ কৈরালা নেপালের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। এরপর মিউজিক্যাল চেয়ারের মতো নেপালের ক্ষমতার পালাবদল হয়েছে বারবার।

২০০৮ সালের ১৫ আগস্ট প্রথমবার নেপালের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন প্রচণ্ড। সেনাপ্রধানকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়ে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি রামবরণ যাদবের সঙ্গে মতানৈক্যের কারণে ২০০৯ সালের ৪ মে পদত্যাগ করেন মাও নেতা। বুধবার প্রধানমন্ত্রী পদে ফের সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে নির্বাচিত হলেন ৬১ বছরের রাজনীতিবিদ।