মেইন ম্যেনু

নেপিয়ারে নিউজিল্যান্ডকে হারাতে পারবে কী টাইগাররা?

সাগরের গা-ঘেঁষা পাঁচতারা যে হোটেলটিতে উঠেছেন মাশরাফিরা, তার সব রুম থেকেই কানে আসে সুমদ্রের ডাক। কী জানি কী একটা টান আছে ওই শব্দে। তাই হাউকি বের বাঁধানো পাড় ধরে সারাদিনই ছেলে-বুড়োর ভিড়।

নেলসন থেকে দুপুরে নতুন এই শহরে এসে মাশরাফিরাও কেউ কেউ বেরিয়েছিলেন সান্ধ্য ভ্রমণে। নেলসনের মতো এখানে এতটা ঠাণ্ডা নেই, বাতাসের বেগও খানিকটা কম। নতুন বছর, নতুন শহর, নতুন ফরম্যাট_ আফসোসে মোড়া ওয়ানডে সিরিজের দুঃস্মৃতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য এটাই হতে পারে বাংলাদেশিদের জন্য আদর্শ মঞ্চ।

কাল বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টায় এই শহরের ম্যাকলিন পার্কে সিরিজের প্রথম টি২০। প্রায় ৩৭ বছরের পুরনো এ মাঠে আবার এটাই হতে যাচ্ছে প্রথম টি২০। সব মিলিয়ে প্রথম ও শুরুর একটা পেলব পরশ জড়িয়ে থাকছে এই নেপিয়ারে।

গতকাল বিকেলে টিম হোটেলের যে রুমটিতে কোচ, নির্বাচক আর দলের সিনিয়র ব্যাটসম্যানদের বিশেষ মিটিং হলো, সেখানে এমনই কিছু বলে সবাইকে আবার ‘শুরু’ করার ডাক দেওয়া হয়েছে।

পুরো সিরিজে একটি অন্তত জয় চাই, অন্তত একটি জয় পাবেই বাংলাদেশ- এমন একটা জোরালো বিশ্বাস আছে ক্রিকেটারদের মনে। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে যে সুযোগ হেলায় হাতছাড়া হয়েছে, সেটা টি২০-তে অন্তত হতে দিতে চান না টিম ম্যানেজমেন্ট। ওয়ানডে থেকে বেশ কিছু ঘষামাজা হতে যাচ্ছে টি২০-তে। একাদশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে সৌম্য সরকারকে।

একাদশে আরও পরিবর্তন দেখা যেতে পারে, তাসকিনের জায়গায় দেখা যেতে পারে পেসার রুবেলকে। তবে মুস্তাফিজের যে বিশ্রাম পদ্ধতিতে এগোচ্ছে দল, সেটা প্রথম টি২০-তে থাকছে না। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে মুস্তাফিজকে খেলানোর পক্ষে টিম ম্যানেজমেন্ট।

কথা উঠেছিল স্কোয়াডে থাকা শুভাগত হোম চৌধুরীকে নিয়ে। অফস্পিনার অলরাউন্ডার হিসেবেই দলে জায়গা হয়েছে তার। কিন্তু প্রথম ম্যাচে তার জায়গা হচ্ছে না, ভরসা করা হচ্ছে মোসাদ্দেকের ওপরই।

ওয়ানডে সিরিজে কিউইরা তাদের কন্ডিশন আর বাংলাদেশের দুর্বলতাগুলো দারুণভাবে স্টাডি করে ঘায়েল করেছিল মাশরাফিদের। নেপিয়ারে কাল পৌঁছে টিম ম্যানেজমেন্ট যতটুকু খবর জোগাড় করেছে তা হলো, এখানে রান আসে প্রচুর।

আর টি২০ বলে কিউরেটরও পাটা উইকেট বানিয়েছেন। ওয়ানডে সিরিজে কিউইরা শুধু পেসারদের দিয়ে নয়, নেলসনে রীতিমতো সাত বছর পর বুড়ো জিতেন প্যাটেলকে ডেকে এনে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের অস্বস্তিতে ফেলেছিল। তাই এ ম্যাচেও কিউইরা স্পিনশক্তি বাড়াবে বলেই ইঙ্গিত।

গতকাল নেলসন থেকে একই ফ্লাইটে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড দল নেপিয়ারে এসেছে। নিউজিল্যান্ডের দক্ষিণের ওই শহর থেকে উত্তরে এখানে আসতে সরাসরি কোনো ফ্লাইট নেই। তাই এয়ার নিউজিল্যান্ডের একটি বিমান ভাড়া করে এক ঘণ্টার ফ্লাইটে একই সঙ্গে এসেছে দু’দল।

মাঠে যতই প্রতিপক্ষ হোক, বাইরে তাদের সঙ্গে সম্পর্কটা বেশ ভালো। তবে অতিথি হয়ে এসেছেন বলে মাশরাফিদের সঙ্গে হয়তো হাত মেলাচ্ছেন উইলিয়ামসনরা হাসিমুখে, ম্যাচে কিন্তু তাদের তোপ শুধু ব্যাটে-বলেই থাকে না, মুখেও ঘায়েল করার চেষ্টা করে টাইগারদের। অন্তত নেলসন থেকে তেমনই হয়ে আসছে।