মেইন ম্যেনু

নোয়াখালীতে আ’লীগ বিদ্রোহী প্রার্থীর বাড়ি ঘেরাও, অগ্নিসংযোগ

এম.এ আয়াত উল্যা, স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী : নোয়াখালীর সদর উপজেলার ২০নং আন্ডারচর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আ’লীগ বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থীর বাড়ি ঘেরাও করে একটি বসতঘরে অগ্নিসংযোগ করে সম্পূর্ণ পুড়িয়ে দিয়েছে তার কর্মী-সমর্থকরা। (৩০ মে) দুুপুরে আন্ডারচর ইউনিয়নের একরামুল করিম চৌধুরী বাজার সংলগ্ন আ’লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী খুরশিদ আলমের নিজ বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানয়, ৬ষ্ঠ দফার নির্বাচনে নোয়াখালীর আন্ডারচর ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খুরশিদ আলম তৃণমূলের সর্বোচ্চ ভোট পেলেও দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নেন। নির্বাচনী সকল প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে প্রতীক পেয়ে প্রচার-প্রচারণা শুরুর করার পর জেলা আ’লীগ নেতাদের অনুরোধে বিদ্রোহী প্রার্থী খুরশিদ আলম ইউপি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়ে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে অবস্থান নেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে দুপুরে খুরশিদ আলমের কর্মী-সমর্থকরা প্রতিবাদ জানিয়ে ও তাকে নির্বাচন করার দাবিতে তার বাড়ি ঘেরাও করেন। একপর্যায়ে উত্তেজিত এলাকাবাসী তার একটি বসতঘরে অগ্নিসংযোগ করে সম্পূর্ণ পুড়িয়ে দেয়। এসময় বিক্ষুব্ধরা এলাকার বিভিন্ন সড়কের গাছ কেটে সড়ক অবরোধ করে শ্লোগান দেয় খুরশিদ নির্বাচন না করলে তাকে এলাকা থেকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হবে। পরে মাইজদী ফায়ার সাভির্সের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আধা ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এরআগেই আগুনে আ’লীগ বিদ্রোহী প্রার্থীর বসতঘরটি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এতে প্রায় ৫ লাখ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আ’লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী ও আন্ডারচর ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খুরশিদ আলম জানান, আমি দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করে মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী মাঠে প্রচার-প্রচারণা শুরু করি। কিন্তু দলীয় নেতৃবৃন্দের সিদ্ধান্ত ও দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রেখে গত ২৩ মে থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ শুরু করি। এতে আমার কর্মী-সমর্থকরা ক্ষুব্ধ হয়ে আমাকে পুনরায় মোটর সাইকেল প্রতীকে নির্বাচন করতে নানাভাবে চাপ দিয়ে আসছিল। আমি এতে সাড়া না দেওয়ায় কর্মী-সমর্থকরা দুপুরে আমার বাড়ী ঘেরাও করে একটি বসতঘর আগুনে পুড়িয়ে দেয়। মাইজদী ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার রফিক উল্যাহ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আধাঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। তবে এরআগেই বসতঘরটি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। সড়ক অবরোধে কারণে ঘটনাস্থলে পৌঁছতে আমাদের দেরী হয়েছে।

Noakhali News 30.05.2016 (3)