মেইন ম্যেনু

নোয়াখালীতে ডাকাতের গুলিতে শিশু ও নারীসহ আহত ১০

এম.এ আয়াত উল্যা, স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী: নোয়াখালী সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নে ডাকাতের ছোঁড়া গুলি ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ১০ মাসের এক শিশু ও তিন নারীসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। সোমবার দিনগত গভীর রাতে ওই ইউনিয়নের আন্ডারচর গ্রামের এ হামলার ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে আমির হোসেন (২০), ফারুক হোসেন (৫০), জেসমিন আক্তার (১৭), ফাতেমা আক্তার (২৫) ও ইয়াছমিন আক্তারকে (১০ মাস) নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এছাড়াও আহত সাইফুল ইসলাম (৬০), শাকিল আহমেদ (০৭), মনিরুল ইসলাম (২২), বিবি কুলসুম (৫০) সহ অপর ৫ জনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

পুলিশ ও আহতরা জানান, সোমবার দিনগত মধ্যরাতে আন্ডারচর গ্রামের সাইফুল ইসলামের বসত ঘরের দরজা ভেঙে ১৫-২০ জনের অস্ত্রধারী ডাকাত দল ভেতরে প্রবেশ করে। ডাকাতরা ধারালো অস্ত্রের আঘাতে পরিবারের সদস্যদেরকে আহত করে ঘরের মালামাল লুট করে। পরে আহতদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন একত্রিত হয়ে ডাকাতদের ধাওয়া করলে ডাকাতের এলোপাতাড়ি গুলিতে কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হন। পরে আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী জানান, আহতদের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি ৫ জনের অবস্থা গুরুতর। এরমধ্যে আমির হোসেন ও ফারুক হোসেনের অবস্থা আশংকাজনক। সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যপারে মামলা দাযেরের প্রস্তুতি চলছে।