মেইন ম্যেনু

নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি শুরু

সর্বনিম্ন মজুরি ১০ হাজার টাকা প্রদানসহ ১৫ দফা দাবি বাস্তবায়নে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি শুরু করেছে নৌযান শ্রমিকেরা। সোমবার দিবাগত রাত ১২টা ১মিনিট থেকে এই কর্মবিরতি শুরু হয়েছে।

নৌ-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে এই কর্মসূচির ডাক দেয়া হলেও বাকি সংগঠনগুলো সমর্থন জানিয়ে কর্মবিরতি পালন শুরু করেছে। কর্মবিরতির ফলে যাত্রী, পণ্য ও জ্বালানিবাহীসহ দেশের সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ থাকবে বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. শাহ আলম জানান, যুগযুগ ধরে নৌযান মালিকেরা শ্রমিকদের কম মজুরি দিয়ে আসছেন। দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে নৌযান শ্রমিকেরা অসহায় জীবন-যাপন করছেন। তাই শ্রমিকদের সর্বনিম্ন ১০ হাজার টাকা মজুরিসহ ১৫ দফা দাবিতে চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারি থেকে লাগাতার ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছিল। ওই সময় নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান জরুরি সভা ডেকে তাদের দাবি মেনে নেয়ার জন্য সময় চাইলে ধর্মঘট স্থগিত করা হয়। কিন্তু মন্ত্রীর আশ্বাস আর বাস্তবায়ন হয়নি।

এ অবস্থায় সোমবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে দেশের সব নৌযান শ্রমিক অনির্দষ্টকালের জন্য কর্মবিরতিতে গেছেন। এই ধর্মঘটে যাত্রী, পণ্য ও জ্বালানিবাহী নৌযানসহ সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ থাকবে।

তবে সোমবার রাত ১২টার পূর্বে যেসব নৌযান গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে, সেসব নৌ যান মঙ্গলবার সকাল থেকে ধর্মঘটের আওতায় আসবে।