মেইন ম্যেনু

পদ-পদবী না পাওয়ায় খালেদার সামনেই ক্ষোভ

ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতাদের মধ্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকজন তাদের মূল্যায়নের ব্যাপার নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কাছে। তাদের অভিযোগ, বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনগুলোয় হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাকর্মীদের কোন মূল্যায়ন হচ্ছে না।

সোমবার রাতে চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্ট আয়োজিত এক শুভেচ্ছা বিনিময় সভা শেষে তারা এ অভিযোগ করেন। শুভ জন্মাষ্ঠমী উপলক্ষে এই শুভেচ্ছা বিনিময় সভায় আয়োজন করা হয়।

বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তারা বলেন,‘ আপনিও আমাদেরকে মূল্যায়ন করেন না। অথচ বিএনপির যে কোন আন্দোলন ও সংগ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাকর্মীরাই সবার আগে থাকে। হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাকর্মীরাই সবচেয়ে বেশি নির্যাতনের সম্মুখীন হন। কিন্তু আপনি আমাদেরকে সেভাবে মূল্যায়ন করেননি।’

এ সময় বেগম খালেদা জিয়ার কাছে প্রশ্ন রেখে ছাত্রদলের পদ-বঞ্চিত নেতা রতন বালা বলেন,‘ হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাকর্মীরা ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, শ্রমিক দল ও কৃষক দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হতে পারেন না। আপনি কেনো এতোদিন আমাদের এই পদ-পদবী থেকে বঞ্চিত রেখেছেন? আমরা হিন্দু এটাই কি আমাদের বড় অপরাধ?’

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তিনি আরো বলেন, ‘আপনি আমাদের মা। তাই আপনি আমাদের দায়িত্ব ও সুযোগ দেন। আপনার সম্মান রাখার দায়িত্ব আমাদের। কারণ হিন্দুরা কারো সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করে না।’

একই অনুষ্ঠানে ছাত্রদলের পদ-বঞ্চিত নেতা তরুণ দে বলেন, ‘বিএনপির আন্দোলন-সংগ্রামে মিছিল-মিটিং করে হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাকর্মীরা। আর মিথ্যা মামলায় কারাগারেও যায় তারা। আর এর সুযোগ ও সুবিধা ভোগ করে অন্যরা। তাই ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) আপনার কাছে আমাদের একটাই চাওয়া, আপনি হিন্দু সম্প্রদায়ের বিএনপিপন্থি নেতাকর্মীদের যথাযথ মূল্যায়ন করুন। তাদের ভালো পদ-পদবী দিন।’

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান কল্যাণ ফ্রন্টের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট গৌতম চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে এ শুভেচ্ছা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বিএনপির পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সাবেক মন্ত্রী নিতাই রায় চৌধুরী, সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জয়ন্ত কুন্ডু প্রমুখ।

ব্রম্মচারীদের মধ্যে তরুণ শ্যাম দাস, শুভ নিতাই গৌর দাস, সিতাপতি ঘোসাই দাসসহ ঢাকার বিভিন্ন মন্দিরের প্রভুবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে শুভ জন্মাষ্ঠমী উপলক্ষে গৌতম চক্রবর্তীর নেতৃত্বে হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাকর্মীরা বেগম খালেদা জিয়াকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।