মেইন ম্যেনু

পরকীয়ার এই মারাত্মক বিপদটির কথা কি আপনি জানেন?

পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন অনেকেই। কিন্তু জানেন কি, ভারতে বসে পরকীয়া করার পরিণাম মারাত্মক হতে পারে?

ভারতীয় পেনাল কোডের ৪৯৭ ধারা পরকীয়া প্রেমের ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। এ ধারা অনুযায়ী, কোনো পুরুষ যদি কোনো বিবাহিত মহিলার সঙ্গে প্রণয়সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন এবং সেই সম্পর্ক যদ‌ি অনৈতিক সম্পর্কে গড়ায় তাহলে স্বামীর অনুমতি ব্যতীত স্ত্রীর সঙ্গে এ কাজের অপরাধে প্রেমিক পুরুষটির ৫ বছর পর্যন্ত কারাবাস হতে পারে।

আইন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিবাহ-বহির্ভূত এ সম্পর্কের ফলে যদি কোনো বিবাহিত মহিলা কোনো সন্তানের জননী হন, তাহলে সেই শিশুর ভরণ-পোষণের দায়িত্ব পড়ে সেই মহিলার স্বামীর ওপর। সেটা অন্যায়।

তাছাড়া সেই সন্তানের ক্ষেত্রে উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি আইন কীভাবে বর্তাবে সেই বিষয়টি নিয়েও সমস্যা দেখা দেয়। সেই কারণেই ইন্ডিয়ান পেনাল কোডে বিবাহিত মহিলার সঙ্গে স্বামী ব্যতীত অন্য পুরুষের অনৈতিককাজের বিষয়টিকে অপরাধ বলে গণ্য করা হয়।

কিন্তু মজার বিষয় হলো, এ ধরনের সম্পর্কের ক্ষেত্রে আইন কিন্তু বিবাহিত মহিলাটিকে অপরাধী বলে গণ্য করে না। সঙ্গত কারণেই বিভিন্ন সময়ে এ আইনের সমালোচনাও হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

কে‌উ বলেছেন, পরকীয়া সম্পর্কে একতরফা পুরুষটিকে দায়ী করা অন্যায়। নারীবাদীরা আবার বলছেন, বিবাহিত নারী তো স্বামীর সম্পত্তি নয়।

তাহলে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে স্বামীর অনুমতির প্রসঙ্গ আসে কীভাবে! সমালোচনা যাই হোক, মোদ্দা কথা হলো, ভারতীয় পেনাল কোডের এ পরকীয়া-বিরোধী ধারাটি বহুকাল ধরেই বহাল তবিয়তে দেশে চালু রয়েছে।